Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭, ১১ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

স্বাস্থ্যবিধি অমান্য যশোরে বেড়েই চলছে করোনা

যশোর ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২৪ জুন, ২০২০, ১২:০১ এএম

যশোর জেলায় স্বাস্থ্যবিধি অমান্যের ঘটনা বেড়েছে। এ কারণে করোনাভাইরাসও বাড়ছে উদ্বেগকজনকহারে। গুরুত্বপূর্ণস্থানে মোবাইল কোর্ট বসিয়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় জরিমানা আদায়, রেড-জোন ও লকডাউন ঘোষণা করেও লোকজনের অবাধ চলাচল বন্ধ করা যাচ্ছে না। স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যাও দিন দিন বেড়েই চলছে।

যশোর সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন দৈনিক ইনকিলাবকে জানান, গতকাল মঙ্গলবারও ২৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ পর্যন্ত ৩ হাজার ৪ শ’ ১১ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে ৩ শ’ ৬৫ জনের। তার কথা, যশোরে করোনা আক্রান্তের হার বেড়ে যায় ঈদের পর থেকে। এর আগে এতটা ভয়াবহ ছিল না। তিনি বলেন, বারবার বিভিন্নপন্থায় জনসাধারণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে, কিন্তু অমান্যের ঘটনা বেড়েই চলছে। যশোর জেলার করোনা পরিস্থিতি বর্তমানে উদ্বেগজনক।

তিনি জানান, গতকাল মঙ্গলবার একদিনেই জেলার একমাত্র আধুনিক চিকিৎসার ভরসাস্থল যশোর ২৫০ বেড হাসপাতালে কর্মরত ১২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই নিয়ে এ পর্যন্ত জেলায় ৬৭ জন ডাক্তার, নার্সসহ স্বাস্থ্য কর্মী আক্রান্ত হলেন। জেলায় মারা গেছেন দু’জন। হাসপাতাল সূত্রে জানায়, করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে ১১ জন।

যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ শফিউল আরিফ এই প্রসঙ্গে বললেন, গত দু’দিনে জেলার বিভিন্নস্থানে প্রায় অর্ধশত ব্যক্তির কাছ থেকে জরিমানা আদায় করা হয়েছে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায়। ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও দোকানপাটে নির্দ্দিষ্ট সময়ের পর মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হচ্ছে। ঘোষণা করা হয়েছে রেড-জোন ও ইয়েলো-জোন এবং লকডাউনও করা হয়েছে বিভিন্ন এলাকায়। তারপরেও অবাধ চলাচল থামানো কঠিন হচ্ছে। তিনিও বললেন, ঈদের পর থেকেই করোনা আক্রান্তের হার বেড়েছে যশোরে। তিনি গতকাল মঙ্গলবার থেকে নতুন করে মাইকিংসহ বিভিন্নপন্থায় করোনা সংক্রমণরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধির কার্যক্রম জোরদার করা হয়েছে বলে জানালেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

২৫ জানুয়ারি, ২০২১
২৪ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন