Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

রাজশাহীর আকাশে দিনে রাতে উড়ছে রংবেরংয়ের ঘুড়ি

বিপাকে বিমান বন্দর কর্তৃপক্ষ

রাজশাহী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৪ জুন, ২০২০, ২:০০ পিএম

করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় ঘরবন্দি যুবকরা সময় কাটানোর জন্য বিকেল থেকে রাত অবদি ঘুড়ি ওড়ানোয় মেতে উঠেছে। কি গ্রাম কি শহর সর্বত্রই বিকেল হলেই শুরু হচ্ছে ঘুড়ি ওড়ানো। চলছে কাটাকাটির খেলা। বিভিন্ন ধরনের ঘুড়ি উড়ছে আকাশে। রাতের বেলাতেও উড়ছে রঙবেরঙয়ের বাতি লাগানো ঢাউস আকারের ঘুড়ি। ঘুড়ি লাটাইয়ের বেচা বিক্রিও বন্ধ নেই। একেকটি ঘুড়ি কুড়ি থেকে তিনশো টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে যেসব এলাকায় বিমান উড্ডয়ন করে। সেসব এলাকায় ঘুড়ি উড়াতে মানা করে গত তিন দিন ধরে রাজশাহীর হযরত শাহ মখদুম বিমানবন্দরের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। কারণ আকাশে উড়ানো ঘুড়ির কারণে মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে উড্ডয়ন করছে এখানকার প্রশিক্ষণ বিমানগুলো। গত ২৪ মার্চ থেকে করোনাভাইরাসের কারণে রাজশাহী-ঢাকা রুটে যাত্রীবাহী বিমান যাতায়াত বন্ধ রয়েছে। তবে রাজশাহীর হযরত শাহ মখদুম বিমানবন্দরের প্রত্যেক দিন দুই-তিনটি প্রশিক্ষণ বিমান আকাশে উড্ডয়ন করে থাকে। এব্যাপারে নগরীর শাহমুখদুম বিমান বন্দরের ম্যানেজার সেতাফুর রহমান জানান, আমাদের এখান থেকে গড়ে প্রত্যেক দিন তিনটি প্রশিক্ষণ বিমান উড্ডয়ন করছে। তাই আন্তর্জাতিক নিয়ম অনুযায়ী যেসব এলাকায় বিমান উড্ডয়ন কিংবা ওঠা-নামা করে থাকে। সেসব এলাকায় ঘুড়ি উড়াতে নিষেধ করে মাইকিং করা হচ্ছে। শুধু প্রশিক্ষণ বিমান নয়, ঢাকা থেকে রাজশাহীতে হঠাৎ করে যাত্রীবাহী বিমান আসলে যেন ঘুড়ি উড়ানোর কারণে সমস্যায় পড়তে না হয়। সেজন্য মানুষকে সতর্ক করার জন্য ঘুড়ি উড়াতে নিষেধ করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন. ইতোমধ্যে এই বিমান বন্দর থেকে দুইটি ফ্লাইং একাডেমি তাদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পুনরায় শুরু করেছে। কিন্তু আকাশজুড়ে উড়ানো ঘুড়ির কারণে অনেকটা ঝুঁকি থেকে যাচ্ছে। আমরা লক্ষ্য করেছি কিছু ঘুড়ি অনেকটা উপরে ফ্লাইং রুটে উড়ছে। এমনটা চলতে থাকলে ঘুড়ি ও সুতার কারণে বড় ধরনের দুর্ঘটনার শঙ্কা থাকছে। তাই আমরা ঘুড়ি উড়ানো বন্ধ করার অনুরোধ জানিয়ে বেশ কয়েকবার এলাকাজুড়ে মাইকিং করেছি। তবে সেটি উপেক্ষা করে এখনও ঘুড়ি উড়ানো অব্যাহত রয়েছে। এ ব্যাপারে পুলিশকেও অবহিত করা হয়েছে।

এই প্রসঙ্গে রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ কমিশনার (সদর) গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, এব্যাপারে বিমান বন্দর ম্যানেজারকে মাইকিং করতে বলা হয়েছে। এরপরও যদি কেউ নির্দেশনা না মানে, তাহলে ঘুড়ি উড়ানো ব্যক্তিকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ