Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ফের বন্যার কবলে আসাম

পানিতে ডুবে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১১ জন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০২০, ১২:০১ এএম

ক্রমেই বাড়ছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ। সাথে নতুন বিপদ দু’দুবার বন্যা। এই দুইয়ের তান্ডবেই শোচনীয় দশা ভারতের উত্তর-প‚র্ব সীমান্তের রাজ্য আসামে। সেখানে একমাসের ব্যবধানে আবারও বন্যা দেখা দিয়েছে। ধরে লাগাতার প্রবল বর্ষণের জেরে ব্রহ্মপুত্র নদ ও এর শাখা ও উপনদীর পানির মাত্রা বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে। এই বন্যায় পানিতে ডুবে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১১ জন। পানিবন্দি ৩০ হাজার মানুষ। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, জোরহাট জেলার নিয়ামাটিঘাটের কাছে ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে। শিবসাগর জেলার দিখোই নদীর পানির মাত্রাও বেড়ে গেছে। এ ছাড়া ধানসিঁড়ি নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় গোলাঘাট জেলার নুমালিয়াগড়ে বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। অন্যদিকে সোনিতপুর জেলার ভিয়া ভরলি নদীর পানিও বেড়ে গেছে। সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি দেখা দিয়েছে ধীমাজি, শিবসাগর, জোরহাট ও ডিব্রুগড় জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা। বন্যায় প্রায় ৩৬০০ হেক্টর চাষের জমির ক্ষতি হয়েছে। ভেসে গেছে অসংখ্য ঘরবাড়ি। এসব এলাকায় প্রায় ৩০ হাজার মানুষ পানিবন্দি। শিবাসাগর জেলায় ৩৩টি গ্রামের ১২ হাজারেরও বেশি মানুষ বন্যাকবলিত। বহু মানুষ আশ্রয়ের খোঁজে উঁচু জায়গায় আশ্রয় নিয়েছেন। অনেকে ত্রাণ শিবিরে গিয়েছেন। দ্বিতীয়বারের এই বন্যায় ছোট-বড় মিলিয়ে ১১ হাজার ৫০০ গবাদি পশু ক্ষতিগ্রস্ত। এনডিটিভি।



 

Show all comments
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২৫ জুন, ২০২০, ১:৩৭ পিএম says : 0
    বন্যার কারণ ভারতের বাঁধ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আসাম

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৩০ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ