Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ভারতে বিক্রির শীর্ষে চীনা স্মার্টফোন!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০২০, ১০:১৫ এএম

সীমান্তে নিজেদের সেনা হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ আর দাবির মুখেও ভারতে চীনা পণ্যের চাহিদা কমেনি বরং বেড়েছে।
বলিউড তারকা অমিতাভ বচ্চন যে ই-কমার্স সাইটের সেলের বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন, সেগুলো এখন হুড়মুড়িয়ে বিক্রি হচ্ছে রেডমি, অপ্পো, ভিভো, ওয়ানপ্লাসের মতো চীনা কোম্পানির ফোন।

সেক্ষেত্রে ভারতের তরুণরা মনে করেন, চীনা স্মার্টফোনের যে বিকল্পগুলো রয়েছে সেগুলোর দাম তুলনায় খুব বেশি বলেই তারা চীনা ফোনের দিকে ঝুঁকছেন।

তাদের মতে, ভারতীয়দের হয়তো এখন চীনা ফোন বর্জন করা উচিত ঠিকই কিন্তু সমস্যাটা হয়ে যাচ্ছে “ভ্যালু ফর মানি”র বিচারে চীনের প্রোডাক্ট ভারতের চেয়ে অনেক এগিয়ে।

গত এক সপ্তাহের মধ্যে ভারতের বিভিন্ন ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে চীনা মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো যেসব প্রোডাক্ট লঞ্চ করেছে, তা নিমেষেই বিক্রি হয়ে গিয়েছে!

লাদাখ নিয়ে ভারত ও চীনের সীমান্ত সংঘাতের পটভূমিতে ভারতে চীনা পণ্য বয়কট করার জন্য জোরালো দাবি উঠলেও বাস্তবে দেখা যাচ্ছে ভিন্ন চিত্র। পরিসংখ্যান বলছে, ভারতীয় ক্রেতারা বিশেষ করে চীনা মোবাইল ফোন ও ইলেকট্রনিক পণ্য কেনায় বিন্দুমাত্র রাশ টানছেন না।

গত এক সপ্তাহের মধ্যে ভারতের বিভিন্ন ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে চীনা মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো যেসব প্রোডাক্ট লঞ্চ করেছে, তা নিমেষেই বিক্রি হয়ে গিয়েছে। ভারতের সাধারণ গ্রাহকরা বলছেন, চীনা কোম্পানিগুলি সস্তায় ভাল মানের পণ্য দিতে পারে বলেই সেগুলোর এত কদর।

এক বিশেষ প্রতিবেদনে এখবর জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

গালওয়ান উপত্যকায় দিনদশেক আগে অন্তত ২০জন ভারতীয় সেনাসদস্য চীনা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হওয়ার পর চীনা পণ্য বয়কট করার দাবি ভারতে জোরালো হয়েছে। তবে অ্যামাজন বা ফ্লিপকার্টের সেলে চীনা ফোনের ব্যাপকহারে বিক্রি কিন্তু অন্য কথাই বলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত-চীন


আরও
আরও পড়ুন