Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ভারত-চীন পরিস্থতি অত্যন্ত উদ্বেগজনক : ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০২০, ৭:০২ পিএম

ভারত-চীন সীমান্ত সংঘাত নিয়ে চরম উদ্বেগ প্রকাশ করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) কনজারভেটিভ পার্টির সাংসদ ফ্লিক ড্রুমন্ডের এক প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। প্রায় এক মাস ধরে চলা সীমান্ত উত্তেজনা নিয়ে এই প্রথম সরকারি বিবৃতি দিল ব্রিটিশ সরকার।
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তার মন্তব্যে বলেন, "পূর্ব লাদাখের উত্তেজনা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আর উদ্বেগজনক। আশা করবো আলোচনার মাধ্যমেই সমাধানসূত্র মিলবে। আমরা ঘটনা পরম্পরায় নজর রাখছি।"
ভারত ও চীনের নাম না করে ফ্লিকের প্রশ্ন, "কমনওয়েলথ দেশের সদস্য ও বিশ্বের বৃহৎ গণতন্ত্রের মধ্যে হওয়া সংঘাতে ব্রিটেনের ভূমিকা কী?" তখন প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ ছিল, "আমরা উৎসাহ দেব আলোচনার টেবিলে বসে দুই দেশ সমস্যা সমাধানের একটি পথ বের করুক।"
এদিকে, লাদাখের সীমান্তে চীনের স্থাপনা নির্মাণের চিত্র উপগ্রহে ধরা পড়েছে বলে দাবি করছে ভারত। তাদের দাবি, লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় উত্তেজনা কমানোর প্রক্রিয়া শুরুর একদিন পরেই চীনা নির্মাণের ছবি উন্নতমানের উপগ্রহ চিত্রে ধরা পড়েছে।
গত ১৫ জুন ওই এলাকায় সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনা সদস্য প্রাণ হারান। ভারতীয় সেনাবাহিনীর পদস্থ কর্মকর্তাদের বিশ্বাস, চীনের ৪৫ জন সেনার মৃত্যু হয়েছে, তালিকায় একজন কর্নেল পদমর্যাদার কর্মকর্তা।
পেট্রোল পয়েন্ট ১৪ নম্বর সংলগ্ন এলাকার ছবি ধরা পড়েছে, সেখানেই ১৫ জুন সংঘর্ষ হয়। এর আগে ১৬ জুনের উপগ্রহ চিত্রে দেখা গেছে, এই এলাকায় ধ্বংসস্তুপ রয়েছে। নতুন চিত্রে দেখা যাচ্ছে, ওই জায়গায় সম্ভবত প্রতিরক্ষা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে চীনের পক্ষে। নতুন চিত্রে আরও দেখা গেছে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ১৬ জুন সেটি ছিল না।
ভারতের অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল রমেশ ফাড়ি বলেন, “১৪ নম্বর পেট্রোল পয়েন্টে অনুপ্রবেশের পরিষ্কতার লক্ষণ রয়েছে”। তার কথায়, “ছবিতে ভারি যানবাহন চলাচলের চিত্র স্পষ্ট, যার মাধ্যমে ওই এলাকায় বাহিনী মোতায়েনের উদ্দেশের ইঙ্গিত মেলে”।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বরিস জনসন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ