Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

এমসিসির ২৩৩ বছরের ইতিহাসে প্রথম...

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

ক্রিকেটের আইন প্রণয়নকারী সংস্থা মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) ২৩৩ বছরের ইতিহাসে প্রথম নারী সভাপতি হতে যাচ্ছেন ক্লেয়ার কনর। বর্তমান সভাপতি কুমার সাঙ্গাকারার স্থলাভিষিক্ত হবেন সাবেক এই ইংলিশ ক্রিকেটার। তিনি বর্তমানে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) নারী ক্রিকেটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন।
আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, গতপরশু অনলাইন প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত হওয়া এমসিসির বার্ষিক সাধারণ সভায় কনরকে সভাপতি হিসেবে মনোনীত করেন শ্রীলঙ্কার সাবেক তারকা ক্রিকেটার সাঙ্গাকারা। ক্লাবের সদস্যদের অনুমোদন সাপেক্ষে আগামী বছরের ১ অক্টোবর থেকে দায়িত্ব পালন শুরু করবেন তিনি। উচ্ছ¡সিত ও গর্বিত কনর জানিয়েছেন, ‘এমসিসির পরবর্তী সভাপতি হিসেবে মনোনীত হওয়ায় আমি খুব সম্মানিত বোধ করছি। ক্রিকেট এরই মধ্যে আমার জীবনকে ভীষণভাবে সমৃদ্ধ করেছে এবং এখন এটি আমাকে দারুণ এই সুযোগটি দিয়েছে।’ তিনি যোগ করেছেন, ‘জীবনে কতদ‚র এসেছি, তা দেখতে প্রায়শই আমাদের ফিরে তাকাতে হয়। লর্ডসে আমি প্রথমবার গিয়েছিলাম দুচোখ ভরা স্বপ্ন নিয়ে, ক্রিকেটপাগল নয় বছরের মেয়ে হিসেবে। সেসময় নারীদেরকে লং রুমে স্বাগত জানানো হতো না। সময় পাল্টেছে।’
১৯৯৫ সালে ইংল্যান্ড নারী ক্রিকেট দলে অভিষেক হয়েছিল স্পিন অলরাউন্ডার কনরের। তখন তার বয়স ছিল মাত্র ১৯ বছর। ২০০০ সালে পান অধিনায়কত্ব। ২০০৬ সালে অবসর নেওয়ার আগ পর্যন্ত সেই দায়িত্বে ছিলেন তিনি। ইংল্যান্ডের হয়ে ১৬টি টেস্ট, ৯৩টি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন কনর। তার নেতৃত্বে ২০০৫ সালে ৪২ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো নারী অ্যাশেজ জিতেছিল দলটি। খেলা ছাড়ার পর ২০০৭ সাল থেকে সংগঠক হিসেবে ইংল্যান্ডের ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত আছেন তিনি।
গেল অক্টোবরে সাঙ্গাকারা এমসিসির সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ব্রিটেনের বাইরের প্রথম নাগরিক হিসেবে সম্মানজনক এই পদে বসার সুযোগ হয় তার। সভাপতি পদের মেয়াদ এক বছর হলেও করোনাভাইরাসের কারণে বাড়তি আরও এক বছর দায়িত্ব পালন করতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে তাকে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন