Inqilab Logo

রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

পরীক্ষার টেস্ট সিরিজও ছড়াচ্ছে উত্তাপ

ক্যারিবিয়ান বোলিং আক্রমণ নিয়ে সতর্ক ইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

প্রায় চার মাস পর ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ দিয়ে মাঠে ফিরতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে কোন রূপে ধরা দেবে ক্রিকেট, গোটা ক্রিকেট বিশ্বই তাকিয়ে থাকবে আগ্রহ নিয়ে। আগামী মাসের এই টেস্ট সিরিজটিকে তাই ‘লিটমাস টেস্ট’ হিসেবে দেখছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক শন পোলক।
আগামী ৮ জুলাই সাউথ্যাম্পটনে শুরু হবে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট। পরের দুই টেস্ট হবে ম্যানচেস্টারে। সবগুলো ম্যাচই হবে ‘জীবাণুমুক্ত পরিবেশে’ ও দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে। এই সিরিজ দিয়ে শুরু হবে লালার ব্যবহার না করা, কোভিড-১৯ বদলিসহ আর কিছু নতুন নিয়মের ব্যবহার। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ক্রিকেট চালিয়ে যাওয়া কতটা সম্ভব, নিয়মের পরিবর্তন-পরিমার্জন বা নতুন কিছু প্রয়োজন কিনা, এসব অনেক কিছুই নির্ভর করছে এই সিরিজের ওপর।
পোলকের মতে, এসব বাস্তবতার সঙ্গে থাকবে দর্শকদের ক্রিকেট দেখার প্রবল তেষ্টা। গতপরশু এক সাক্ষাৎকারে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই অলরাউন্ডার বললেন, লম্বা সময় ধরে ক্রিকেট ম্যাচের স্বাদ বঞ্চিত সমর্থকদের জন্য মনের খোরাক হবে এই সিরিজ, ‘আমার মনে হয়, এটা (ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ) সম্ভবত হতে যাচ্ছে দীর্ঘদিনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মানুষের দেখা টেস্ট সিরিজ। কারণ লোকে খেলা দেখার জন্য তৃষ্ণার্ত হয়ে আছে। তারা আগ্রহের সঙ্গে অপেক্ষা করছে আবারও টেস্ট ক্রিকেট দেখার জন্য। আমার মনে হয়, সিরিজটি হবে কিছুটা লিটমাস টেস্টের মতো, সবকিছু কীভাবে এগোয়, পরিস্থিতি কতটা সামলানো যায় যেন কোনো সমস্যা না থাকে, এসব দেখার সুযোগ।’
তবে এর মাঝেও দু’দলে ছড়িয়ে পড়েছে ক্রিকেটীয় উত্তাপ। গত বছরের শুরুর দিকে ক্যারিবিয়ান সফরে গিয়ে খুব ভুগিয়েছিলেন কেমার রোচ, আলজারি জোসেফ, শ্যানন গ্যাব্রিয়েলরা। তাদের দারুণ বোলিংয়ের জন্য যে সিরিজ ২-১ ববধানে হেরে আসতে হয়েছিল মনে আছে জো রুটের। স্বাগতিকদের সিরিজ জয়ে বড় ভ‚মিকা ছিল পেসারদের। তিন টেস্টে সর্বোচ্চ ১৮ উইকেট নিয়ে রোচ হন সিরিজ সেরা। ১০ উইকেট নেন তরুণ জোসেফ, অভিজ্ঞ গ্যাব্রিয়েল নেন নয়টি। এবার তাদের সঙ্গে ইংল্যান্ড সফরের ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে আছে বেশ কয়েকজন সম্ভাবনাময় পেসার। ইংলিশ টেস্ট অধিনায়ক জানালেন, ঘরের মাঠে তাদের মুখোমুখি হতে এবার প্রস্তুত তারা।
আগামী ৮ জুলাই সাউথ্যাম্পটন টেস্ট দিয়ে শুরু হবে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। প্রতিপক্ষের বোলিং আক্রমণের গভীরতা নিয়ে দলের সবাই সচেতন বলে বিবিসিকে জানিয়েছেন রুট, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্কিল এবং এই সিরিজে তারা কী করতে পারে, সে সম্পর্কে আমরা খুবই সচেতন। তাদের বোলিং আক্রমণ কতটা ভয়ানক হতে পারে, সেটা তো পরিষ্কার। আর তাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, এসবের জন্য আমরা খুব ভালোভাবে প্রস্তুত।’ রুটের সম্ভাব্য অনুপস্থিতিতে আসছে সিরিজে ইংল্যান্ড দলের নেতৃত্বে দেখা যেতে পারে সহ-অধিনায়ক বেন স্টোকসকে। সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে সিরিজের প্রথম এক-দুই টেস্ট খেলতে নাও পারেন রুট।
প্রতীক্ষিত সিরিজটি খেলতে এ মাসের শুরুর দিকে ইংল্যান্ডে পৌঁছেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে তারা অনুশীলনে নিজেদের প্রস্তুত করছে। এরই মধ্যে নিজেদের মধ্যে একটি তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচও খেলেছে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটাররা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্যারিবিয়ান-বোলিং-আক্রমণ
আরও পড়ুন