Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

আমাকে ক্ষমতা থেকে সরানোর ষড়যন্ত্র করছে ভারত-নেপালের প্রধানমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ জুন, ২০২০, ৩:৫৭ পিএম

কয়েকদিন আগেই ভারতের সাথে বিতর্কিত তিনটি ভূখণ্ডকে নিজেদের বলে দাবি করে মানচিত্র তৈরি করেছে নেপাল। তারপর সংবিধান সংশোধন করে তাকে স্বীকৃতিও দিয়েছে। এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছিল ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তারা যে বিষয়টি ভালভাবে নেয়নি এবং গোপনে কোন পদক্ষেপ নিতে পারে, এবার সেই আশঙ্কাই প্রকাশ করলেন নেপালের অত্যান্ত জনপ্রিয় প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি। তিনি জানিয়েছেন, ভারত তাকে ক্ষমতা থেকে সরানোর ষড়যন্ত্র করছে।

রোববার একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সরাসরি ভারতের দিকে অভিযোগের আঙুল তোলেন তিনি। বলেন, ‘নেপালের সংবিধান সংশোধনের পর থেকেই আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে দিল্লি। নতুন মানচিত্র তৈরির জন্যই আমার প্রতিপক্ষদের উসকানি দিয়ে সরকার ফেলার চেষ্টা করছে। না হলে নেপালের সংবিধান সংশোধনের বিষয় নিয়ে দিল্লিতে বৈঠক করার কী দরকার? এর পিছনে আসল উদ্দেশ্য হল আমার সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরানো। যদিও এই চেষ্টায় কোনওভাবেই সফল হবে না তারা। কারণ নেপালের জাতীয়তাবাদ অত ঠুনকো নয় যে কেউ বাইরে থেকে সরকার ফেলে দেবে। আমিও কোনওভাবে বাইরের কোনও শক্তির কাছে মাথা নোয়াব না। কারণ আমি সরে গেলে নেপালের জাতীয়তাবাদ ও সীমানা নিয়ে দাবি জানানোর আর কেউ নেই।’

প্রসঙ্গত, নেপালে যথেষ্ট প্রভাব রাখে ভারত। দেশটির অনেক রাজনীতিবিদও ভারতের পক্ষে রয়েছেন। ফলে, এতদিন শক্তিশালী প্রতিবেশী ভারতের বিরুদ্ধে কথা বলার সাহস পাননি কেউ। তবে, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি জাতীয়তাবাদের প্রশ্নে দেশকে একত্রিত করেছেন। এখন ভারতপন্থীদেরকে তিনি কিভাবে মোকাবেলা করেন, সেটিই এখন দেখার বিষয়। সূত্র: টেলিগ্রাফ ইন্ডিয়া।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ