Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১০ আগস্ট ২০২০, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৯ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

নারায়ণগঞ্জে কিন্ডারগার্টেন স্কুলের মানববন্ধন : জাতীয় বাজেটে শিক্ষকদের জন্য বরাদ্দের দাবি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ জুন, ২০২০, ৪:৩৯ পিএম

জাতীয় বাজেটে সম্মানজনক বরাদ্দের দাবি জানিয়ে নারায়ণগঞ্জে ১৪৬টি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের মানববন্ধন আজ সোমবার সকাল ১১টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বক্তাগণ বলেন, আমরা সরকারের প্রতিপক্ষ নয় বরং সহযোগি। কোটি শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ রচনার কারিগর দেশের প্রায় ১০ লক্ষ শিক্ষকের জন্য জাতীয় বাজেটে সম্মানজনক বরাদ্দ রাখতে তারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট অনুরোধ জানান।

শত শত শিক্ষকের উপস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আজ অনুষ্ঠিত হয় এই মানববন্ধন। এতে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বেসরকারি প্রাথমিক ও কিন্ডারগার্টেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি এমএ সিদ্দিক মিয়া, মহাসচিব শেখ মিজানুর রহমান, সাংবাদিক বিল্লাল হোসেন রবিন, ঢাকা কিন্ডারগার্টেন এসাসিয়েশনের সদস্য সচিব জিএইচ ফারুক, বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন স্কুল ও কলেজ ঐক্য পরিষদের শিক্ষা সচিব মোহাম্মদ আবদুল অদুদ ও সাংবাদিক শাহাদৎ হোসেন স্বপন। সিদ্ধিরগঞ্জ বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঐক্য পরিষদের সভাপতি মুজিবুর রহমান এতে সভাপতিত্ব করেন। সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফ হোসেন ঢালীর পরিচালনায় এতে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক জাকির হুসাইন, রূপগঞ্জ কিন্ডারগার্টেন ও শিক্ষা উন্নয়ন সমিতির মহাসচিব লায়ন সালেহ আহমদ, শিক্ষক নেতা জয়নাল আবেদীন, নারী প্রতিষ্ঠান প্রধান আফরোজা ইসলাম, ওয়ার্ড প্রতিনিধি মো. নাসির বিন হানিফ, মো. আজহারুল ইসলাম, মো. শাহিন, মো. জাবের হোসেন, মো. সোহেল, মো. খোরশেদ আলম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ১০ লাখ রোহিঙ্গা সরকার পালতে পারলে করোনাভাইরাসে বিপদগ্রস্ত ১০ লাখ শিক্ষকের জন্য সাময়িক সহায়তা দায়িত্বও সরকারকে নিতে হবে। কারণ, এই শিক্ষকরাই দেশের কোটি শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ রচনা করছেন এবং তাদের পাঠদানের মান সরকারি স্কুলগুলোর তুলনায় অনেক ভালো। তারা বলেন, আমাদের সংবিধানের ১৭ অনুচ্ছেদে বর্ণিত সরকারের দায়িত্বভুক্ত কাজটিই আমরা সহযোগি হিসেবে বছরের পর বছর ধরে করে আসছি। এখন করোনার কারণে স্কুল দীর্ঘমেয়াদে বন্ধ থাকায় আমাদের শিক্ষকরা কেউ রিক্সা চালাচ্ছেন, কেউ রাজ জোগালীর কাজ করছেন, কেউ কেউ স্কুল বিক্রি ও বন্ধ করে দিচ্ছেন, যা নিশ্চিতভাবে দেশের জন্য একটি অশনি সংকেত এবং জাতীয় লজ্জার ব্যাপার। তাই জাতীয় বাজেটে প্রণোদনা ও আর্থিক সহায়তা বরাদ্দ, রেশন কার্ড প্রদানসহ ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নে রাস্তায় নামতে হলো। দাবি আদায়ে আন্দোলন চলবে বলে শিক্ষক নেতারা হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন