Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

মঠবাড়িয়ায় গৃহবধুর লাশ উদ্ধার, স্বজনদের দাবি পরিকল্পিত হত্যা

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২০, ১:৫৮ পিএম

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা হাসপাতাল থেকে সোমবার রাতে মোসাম্মাৎ সাকিলা বেগম (৩২) নামে এক গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। সাকিলা বেগম পৌরসভার মিরুখালী রোড (৭নং ওয়ার্ড) এলাকার মন্নান বিডিআর এর ছেলে মোঃ হাসান ঘরামীর স্ত্রী। ময়না তদন্তের জন্য গৃহবধূর মরদেহ মঙ্গলবার সকালে পিরোজপুর জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
সাকিলা বেগম পাশর্^বর্তী ভান্ডারিয়া উপজেলার হরিনপালা গ্রামের কাইয়ুম হাওলাদারের মেয়ে। প্রায় ২ বছর আগে হাসান ঘরামীর সাথে সাকিলার বিয়ে হয়। ওই দম্পত্তির ৮ মাসের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।
সাকিলার ভাই লোকমান হোসেন বলেন. আমার বোনের স্বামী সৌদি ফেরত হাসান মাদকাসক্ত। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই কলহের সৃষ্টি হত। আমাদের ধারনা হাসান আমার বোনকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে।
মঠবাড়িয়া থানার এস আই তৌফিকুল ইসলাম জানান, গৃহবধু সাকিলা বেগম তার স্বামী হাসানের সাথে সোমবার বিকেলে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে অভিমান করে ঘরে থাকা কীটনাশক পান করে অসুস্থ হয়ে পরে। এ সময় পরিবারের লোকজন তাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার ইসরাত জাহান শিল্পী জানান, ওই গৃহবধূকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিলো।
মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আ.জ. মো. মাসুদুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। মরদেহের ময়না তদন্তের পর তার মৃত্যুর কারন নিশ্চিত হওয়া যাবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লাশ উদ্ধার


আরও
আরও পড়ুন