Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

কলাপাড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতে ৩৮৫টি মামলা, ১০ লক্ষ ৬১ হাজার টাকা অর্থদন্ড

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২০, ৫:৩৫ পিএম

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস
মোকাবেলায় জনসাধারনের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার
সরকারী নির্দেশনা বাস্তবায়নে কাজ করছে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট’র নেতৃত্বে
পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালত। করোনা পরিস্থিতিতে দেশ ও মানুষের স্বার্থে
কলাপাড়ায় এ পর্যন্ত মোট ৪৮টি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। এতে
মোট ৩৮৫টি মামলা, ০৮ জনকে বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৩৭৭ জনকে অর্থদন্ড প্রদান
করা হয়েছে। তন্মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক পরিধান না করায় দু’টো
ঔষধের দোকানী সহ ২৪ জন পথচারী রয়েছে।

ভ্রাম্যমান আদালতের বেঞ্চ সহকারী উবাসোয়ে জানান, ’করোনা পরিস্থিতির মধ্যে
ঝূঁকি নিয়ে সাধারন মানুষকে সচেতন করতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত
আছে। ২২ মার্চ থেকে ১৪জুন ২০২০ পর্যন্ত ৪৮টি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা
করা হয়েছে। এতে ৩৮৫টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় ৩৭৭জনকে অর্থ দন্ড এবং ০৮
জনকে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে। মোট অর্থ দন্ডের পরিমান ১০
লক্ষ ৬১ হাজার টাকা।’

উবাসোয়ে আরও জানান, ’নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে পরিচালিত
ভ্রাম্যমান আদালত সমূহ দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ১৮৮ ও ২৬৯ ধারা, মৎস্য ও মৎস্য
পন্য (পরিদর্শন ও মান নিয়ন্ত্রন) বিধিমালা ১৯৯৭ এর ৪(২)ধারা, সংক্রামন
রোগ প্রতিরোধ নিয়ন্ত্রন ও নির্মূল আইন ২০১৮এর ২৪ (১) ও ২৪(২) ধারা,
প্রাকৃতিক জলাধার সংরক্ষন আইন ২০০০ এর ৮(১), স্থানীয় সরকার আইন ২০০৯এর
১০৮ (৭) ও ১০৯ ধারা, বালু মহল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর ৪, ১১ ও ১৫
ধারা, অনুসরনে পরিচালনা করা হয়েছে এবং ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন ২০০৯ এর
৩৮ ও ৪০ ধারা অনুসরনে পরিচালনা করা হয়েছে।’

কলাপাড়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জগৎবন্ধু মন্ডল
বলেন, ’সরকারের নির্দেশনায় দেশ ও জনস্বার্থে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত
হয়। তবে করোনা সংক্রমন থেকে দেশের মানুষকে রক্ষায় সরকারের নির্দেশনা ও
স্বাস্থ্য বিধি অনুসরনে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা অব্যাহত থাকবে বলে
জানান নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জগৎ বন্ধু মন্ডল।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভ্রাম্যমাণ আদালত


আরও
আরও পড়ুন