Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

নেছারাবাদে দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের অবহেলায় ফেরত চলে গেছে গরীবের ত্রাণের টাকা

নেছারাবাদ (পিরোজপুর)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০২০, ৫:১২ পিএম

নেছারাবাদে করোনা দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকারের দেওয়া দুস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণের জন্য এডিপির তহবিল থেকে বরাদ্ধ আসা ৪ লাখ ৩৩ হাজার টাকা ফেরত চলে গেছে। ২০১৯-২০ অর্থ বছরের এডিপির ওই টাকা গত মে মাসে বরাদ্ধ আসে। দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের অবহেলা ও সমন্বয়ের অভাবে ৩০ জুনের মধ্যে ওই টাকার ত্রাণ সামগ্রী গরীবদের মাঝে বিতরণ করা হয়নি। প্রায় দুই মাসেও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ না করায় জুন ফাইলালে গরীবের ৪ লাখ ৩৩ হাজার টাকা ফেরত চলে গেছে। 

জানাগেছে করোনা মহামারির এ সময় সরকার দরিদ্র ও নি¤œ আয়ের মানুষকে বিভিন্নভাবে ত্রাণ সহায়তা দিচ্ছেন। এ বছর উন্নয়ন বরাদ্ধের পাশাপাশি এডিবির তহবিল থেকে ত্রাণ বিতরনের উদ্যোগ নেয় সরকার। এ উপজেলার দুস্থদের জন্য ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করতে গত মে মাসে ৪ লাখ ৩৩ হাজার টাকা বরাদ্ধ আসে। একটি সুত্র জানান টাকা বরাদ্ধ আসার পরে উপজেলা পরিষদ চাল, ডালসহ ত্রাণ সামগ্রী ক্রয়ের জন্য একটি মুল্য নির্ধারণ কমিটি এবং একটি ক্রয় কমিটিও গঠন করেন। অজ্ঞাত কারনে পরবর্তীতে আর ওই কমিটিগুলোর কাজ এগোয়নি।
এ বিষয় উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক বলেন, “আমি ইউএনও এবং উপজেলা ইঞ্জিনিয়ারকে ফাইল তৈরী করে ওই কমিটির মাধ্যমে কাজ এগোতে বলেছি। অর্থ বছরের শেষ সময় জুন মাস,সে কারনে হয়ত তারা উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়নটা জরুরী মনে করে ত্রানের কাজে সময় দিতে পারেনি”।
এ বিষয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.মোশারেফ হোসেন বলেন, আমি সদ্য এখানে এসেছি। যেহেতু ত্রাণ সামগ্রী ক্রয় করে টাকা খরচ করা যায়নি, তাই নিয়মানুযায়ী টাকা ফেরত চলে গেছে।
এ বিষয় উপজেলা প্রকৌশলী মীর আলি সাকির বলেন, ক্রয় কমিটি যথা সময় মালামাল ক্রয় করতে পারেনি বলে বিল প্রদান করা সম্ভব হয়নি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ