Inqilab Logo

ঢাকা, রবিবার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৮ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

যশোরে ২ পুলিশের নামে চার্জশিট

ভুয়া সনদে চাকরি

যশোর ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০২০, ১২:০২ এএম

যশোরে মুক্তিযোদ্ধার কোটায় ভুয়া সনদে চাকরি নেয়া মামলায় দুই পুলিশ সদস্যকে অভিযুক্ত করে চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। কোতয়ালি মডেল থানার এসআই ফকির ফেরদৌস গত বুধবার এই চার্জশিট দাখিল করেন। 

অভিযুক্তরা হলেন, সদর উপজেলার এনায়েতপুর গ্রামের কাওছার আলীর মেয়ে নারী কনস্টেবল নম্বর ৫০৬ সোনিয়া খাতুন এবং বাঘারপাড়া উপজেলার নরসিংহপুর গ্রামের দিপন বিশ্বাসের ছেলে কনস্টেবল নম্বর ৭৪৯ নব কুমার বিশ্বাস।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১২ সালের ৯ ডিসেম্বর প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ২০১৩ সালের ৬ জানুয়ারি যশোর পুলিশ লাইন ময়দানে কনস্টেবল পদে নারী-পুরুষ নিয়োগের জন্য পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এদিন মুক্তিযোদ্ধা কোটায় কনস্টেবল পদে সোনিয়া খাতুন ও নব কুমার বিশ্বাস চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হন। ৬ মাসের প্রশিক্ষণ শেষে তাদের বিভিন্ন কর্মস্থলে যোগদান করানো হয়। এরপর তাদের দেয়া মুক্তিযোদ্ধার সার্টিফিকেট যাচাই-বাছাইয়ের জন্য পুলিশ হেড কোয়ার্টারের মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। যাচাই-বাছাইয়ে ওই দু’জনের দেয়া মুক্তিযোদ্ধার সর্টিফিকেট ভুয়া প্রমাণিত হয়। এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর মন্ত্রণালয়ের সুপারিশে প্রতারণা ও জাল-জালিয়াতির অভিযোগে ২০১৯ সালের ৩০ ডিসেম্বর যশোর পুলিশ লাইনসের রিজার্ভ অফিসের আরওআই পরিদর্শক এম মশিউর রহমান বাদী হয়ে ওই দু’জনের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভুয়া-সনদ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ