Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মিয়ানমার সেনাপ্রধান হঠাৎ ‘বন্ধু সেজে ছুরি মারা’র অভিযোগ আনলেন চীনের বিরুদ্ধে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০২০, ১২:২৬ পিএম

দক্ষিণ এশিয়ায় বরাবরই চীনের বন্ধু হিসেবে পরিচিত মিয়ানমার। কিন্তু সেই বন্ধু দেশ মিয়ানমারই এবার চীনের বিরুদ্ধে তুলল অভিযোগ। চীনের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের সেনা প্রধান অভিযোগ করলেন, চীন মিয়ানমারের জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোকে আগ্নেয়াস্ত্র ও অর্থ দিয়ে সাহায্য করছে। - দ্য ইকোনোমিক টাইমস

সম্প্রতি রাশিয়ার একটি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন মিয়ানমারের সিনিয়র জেনারেল মিন আং হ্লুইং। তিনি বলেছেন, দেশের সক্রিয় সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলোর পিছনে রয়েছে একটি শক্তিশালী সেনাবাহিনী। আর সেই শক্তিশালী সেনাবাহিনীর উদাহরণ দিতে গিয়ে তিনি টেনে নিয়ে এসেছেন চীনের প্রসঙ্গ।
মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর মুখপত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জাও মিন তুন পরে বিষয়টি পরিষ্কার করে বলেন, সেনা প্রধান বলতে চেয়েছেন আরাকান আর্মি, আরাকান রোহিঙ্গা সালভেশন আর্মির মত সন্ত্রাসবাদী দলগুলোকে একটি শক্তিশালী সেনা বাহিনী মদদ দিচ্ছে। পাশাপাশি, চীন সীমান্তের অবস্থিত রাখাইন রাজ্যের সন্ত্রাসিদের কথাও উঠে এসেছে সেই প্রসঙ্গে। আরাকান সেনাবাহিনীর পিছনে একটি দেশ রয়েছে বলে উল্লেখ করে তিনি বলেছিলেন, চীনের তৈরি অস্ত্রগুলোই ২০১৯ সালে দেশের সামরিক বাহিনীর ওপর প্রয়োগ করেছিল দেশের সন্ত্রাসি সংগঠন।

মিয়ানমারের সেনা প্রধানের সন্ত্রাসবাদ প্রসঙ্গে বক্তব্য হল, একটি দেশ তার মাটিতে চলা সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ বন্ধ করতে সক্ষম। কিন্তু সন্ত্রাসবাদীদের পিছনে কোনও শক্তিশালী সেনাবাহিনীর হাত থাকলে, তা খুবই দুষ্কর হয়ে ওঠে। পাশাপাশি সেনা প্রধান সন্ত্রাস দমনের ওপর জোর দিয়ে দেশগুলোরর ওপর পারস্পরিক বোঝাপড়া ও সহযোগিতা বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন।



 

Show all comments
  • তীর্থ রায় ৩ জুলাই, ২০২০, ২:২৮ পিএম says : 0
    Very good
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ৫ জুলাই, ২০২০, ৬:৪৫ এএম says : 0
    এই সেনাপ্রধানকে ............................... পাঠানো বিশ্বের সকল দেশের দায়িত্ব। ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমার


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ