Inqilab Logo

ঢাকা, রবিবার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৮ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ভারতের স্বাধীনতা দিবসেই আসছে প্রথম টিকা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

১৫ আগস্ট স্বাধীনতার স্বাদ পেয়েছিল ভারতবাসী। এ বছর ১৫ আগস্ট ফের একবার স্বাধীনতার স্বাদ পেতে চলেছে ১৩০ কোটি ভারতীয়। মারণ করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির আস্বাদ। কারণ, ওইদিনই ভারতের প্রথম করোনা প্রতিষেধক ‘কোভ্যাকসিন’ বাজারে ছাড়তে চলেছে। আগেই মিলেছে আইসিএমআর-এর অনুমোদন। এবার ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনালের এই করোনাভ্যাকসিন স্বাধীনতা দিবসে করোনামুক্তির স্বাদ দিতে আসছে বলে জানিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়।

জানা গেছে, প্রায় এক ডজন স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানকে বাছাই করা হয়েছে এই ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য। কেন্দ্রের শীর্ষ স্বাস্থ্য গবেষণা সংস্থা আইসিএমআর এ কথা জানিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলিকে মানবদেহে এই প্রতিষেধকের পরীক্ষা করতে বলা হয়েছে। ৭ জুলাই থেকে মানবদেহে এই প্রতিষেধকের পরীক্ষা শুরু হবে। আইসিএমআর প্রতিষ্ঠানগুলিকে চিঠিতে জানিয়েছে, যে পুণের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভায়োলজিতে সার্স-কোভ-২ ভাইরাস নিয়ে কাজ করে এই ভ্যাকসিন তৈরি করা হয়েছে। আইসিএমআর এবং বিবিআই যৌথ উদ্যোগে এই ভ্যাকসিনের প্রি-ক্লিনিকাল এবং ক্লিনিকাল ডেভলপমেন্টের উপর কাজ করছে। সাধারণ মানুষের জন্য ১৫ আগস্ট এই ভ্যাকসিন আনতে চাইছে আইসিএমআর।

গতকাল শুক্রবার সকালে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দেয়া পরিসংখ্যান বলছে, পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ২০ হাজার ৯০৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ২৫ হাজার ৫৪৪ জন। এদের মধ্যে ৩ লাখ ৭৯ হাজার ৮৯২ জন ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এখনও চিকিৎসাধীন ২ লাখ ২৭ হাজার ৪৩৯ জন। অর্থাৎ, ক্রমেই বাড়ছে সক্রিয় রোগীর থেকে করোনাজয়ীর সংখ্যা। সংক্রমণের নিরিখে এখনও চতুর্থ স্থানেই আছে ভারত। শুধুমাত্র আমেরিকা, ব্রাজিল এবং রাশিয়া রয়েছে ভারতের উপরে। তবে সংক্রমণের নিরিখে ভারত যে দ্রুতই রাশিয়াকে ছাপিয়ে যাবে তা আন্দাজ করা যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রতিদিন যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে চলতি সপ্তাহেই রাশিয়াকে টপকে যাওয়া শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন