Inqilab Logo

ঢাকা, রবিবার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৮ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

লাদাখে আরও এক ডিভিশন সেনা মোতায়েন করল ভারত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ জুলাই, ২০২০, ১:১১ পিএম

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আচমকা সফরের পরপরই গতকাল শুক্রবার লাদাখে সেনা সমাবেশ আরও বাড়িয়েছে ভারত। সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, সবমিলিয়ে পূর্ব লাদাখে এই মুহূর্তে ভারতের সেনা সমাবেশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে চার ডিভিশনে। লাদাখে একসঙ্গে এত সেনা মোতায়েন অতীতে কখনও করেনি ভারত।
পূর্ব লাদাখে মে মাসের আগে মাত্র এক ডিভিশন মোতায়েন ছিল। এক-একটি ডিভিশনে থাকে ১৫ হাজার থেকে ২০ হাজার সেনা সদস্য। অর্থাৎ চার ডিভিশন মিলিয়ে ভারতের দিক থেকে প্রায় ৮০ হাজারের কাছাকাছি সেনা মোতায়েন রয়েছে পূর্ব লাদাখে। সূত্রের বরাতে তারা বলছে, নতুন ডিভিশন এসেছে উত্তর প্রদেশ থেকে। শুধু সেনা সমাবেশ নয়, সেইসঙ্গে সমরাস্ত্র, যুদ্ধের সরঞ্জামও বাড়ছে।
শুক্রবার লাদাখে দাঁড়িয়ে সরাসরি চীনকে কড়া বার্তা দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত এবং সেনাপ্রধান এম এম নারাবনে।
ভারতীয় সেনাদের বীরত্বের প্রশংসা করে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'আগ্রাসনের দিন শেষ। এখন প্রগতির যুগ। এগিয়ে যাওয়ার সময়। ইতিহাস সাক্ষী আগ্রাসনকারীরা সবসময় ধ্বংস হয়েছে। যারা আগ্রাসনের নীতিতে চলছে, তারা শান্তির পক্ষে বিপদের কারণ।'
সেনাদের উদ্বুদ্ধ করতে মৃত সৈনিকদের মায়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘আমি দুই মাকে সবচেয়ে বেশি সম্মান করি। এক, ভারতমাতা এবং দুই, বীরমাতা, যারা এই সাহসী, পরাক্রমী সেনাদের জন্ম দিয়েছেন।’
একইদিনে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার ওপর যেকোনও কৃত্রিম বাধা ভারতীয় স্বার্থের ক্ষতির কারণ হবে বলে সতর্ক করে চীন। বেইজিং-এর পক্ষ থেকে সীমান্তে শান্তি সমুন্নত রাখতে দুই দেশের ঐক্যবদ্ধ তৎপরতার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, ভারতে চীনের বাণিজ্যিক অধিকার বজায় রাখতে বেইজিং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে।



 

Show all comments
  • ash ৪ জুলাই, ২০২০, ৩:৫৬ পিএম says : 0
    MODI AGRASHONER NITETE VAROT E CHOLSE, TUMI E CHALACHOOO ! AKHON BUJO THELA ! BAGHER WPORE TAG THAKE ! HOPE INDIA LEARN THIS TIME POROPER WAY
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন