Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

নরেন্দ্র মোদির ভুয়া হাসপাতাল পরিদর্শন!

দূষিত ও অসমর্থিত : ভারতীয় সেনাবাহিনী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির লেহে অবস্থিত ‘ভুয়া’ হাসপাতালে পরিদর্শন করেছেন বলে দেশটি সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা চলছে। বিশেষ করে হাসপাতাল পরিদর্শনকালে তোলা ছবিতে কোন চিকিৎসক, চিকিৎসা সরঞ্জাম এবং কোন নার্স না থাকায় হাসপাতালটিকে ভুয়া বলে আখ্যায়িত করছেন অনেকে। এ ধরনের রিপোর্টকে গতকাল ‘দূষিত, অসমর্থিত’ বলে অভিহিত করেছেন ভারতীয় সেনাবাহিনী। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে দাবি করা হয়েছে যে, প্রধানমন্ত্রী একটি ভুয়া হাসপাতালে গিয়েছিলেন যেখানে গ্যালওয়ান সংঘর্ষে আহত সৈন্যদের চিকিৎসা করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীর সফরের একদিন পর মন্ত্রণালয়ের পোস্ট করা সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়, ‘২০২০ সালের ৩ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদি লেহে যে জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শন করেন তার সুযোগ-সুবিধা ও তার অবস্থান সম্পর্কে কিছু মহলে দূষিত ও অসমর্থিত অভিযোগ উঠেছে। দুর্ভাগ্যজনক যে, আমাদের সাহসী সশস্ত্র বাহিনীকে নিয়ে এ ধরনের আচরণ করা হচ্ছে। সশস্ত্র বাহিনী তাদের কর্মীদের সম্ভাব্য সর্বোত্তম চিকিৎসা দেয়। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় স্পষ্ট করে জানিয়েছে, এটি স্পষ্ট করে বলা হয়েছে যে, উল্লিখিত সুবিধাটি ১০০ শয্যার সঙ্কট স¤প্রসারণ ক্ষমতার একটি অংশ এবং জেনারেল হাসপাতাল কমপ্লেক্সের বৃহৎ অংশ’।

এতে আরও বলা হয়েছে যে, কোভিড-১৯ প্রোটোকল জেনারেল হাসপাতালের কয়েকটি ওয়ার্ডকে আইসোশেন ওয়ার্ডে রূপান্তরিত করার প্রয়োজন পড়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘অন্য সময় সাধারণত প্রশিক্ষণ অডিও ভিডিও হল হিসাবে ব্যবহৃত এই হলটিকে কোভিড চিকিৎসা হাসপাতাল হিসাবেও মনোনীত করার পর থেকেই তাকে ওয়ার্ডে রূপান্তর করা হয়েছিল’।

‘গালওয়ান থেকে আগত আহত সাহসী যোদ্ধাদের সেখানে রাখা হয়েছে কোভিড অঞ্চল থেকে কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতেই। সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এম এম নারভানে এবং সেনা কমান্ডার একই স্থানে আহত বাহিনীর সদস্যদের পরিদর্শন করেছেন’- সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে স্পষ্ট করা হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী লেহের একটি হাসপাতালে পরিদর্শন করার অব্যবহিত পরে সামাজিক গণমাধ্যমের বিভিন্ন পোস্টে সফরের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। বেশ কয়েকটি পোস্টে হাসপাতাল চত্বরে মেডিকেল কর্মী ও সরঞ্জামের অনুপস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।



 

Show all comments
  • ঊজ্জ্বল ঊজ্জ্বল ৫ জুলাই, ২০২০, ১:৪০ এএম says : 0
    ভারত দেশটাই ভূয়া।
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Jamil H Rana ৫ জুলাই, ২০২০, ১:৪০ এএম says : 0
    মোদি সব ঠকবাজি জানে, শুধু জানে না কিভাবে উন্নয়ন করতে হয়।
    Total Reply(0) Reply
  • Jahid Hasan Kallal ৫ জুলাই, ২০২০, ১:৪১ এএম says : 0
    ভা র ত ! এই নামের কোন দেশই থাকবে না। নরেন্দ্র মদি দুইটা চাপে পড়ছে, ১-দেশের মানুষ বর্ডার ঘটনাগুলোর অতি উত্তম জবাব চায় মদি সরকারের কাছে। ২- ভয় কিন্তু একদিকে নয়। ( চীন + পাকিস্তান + নেপাল) একটু ১৯-২০ হইলেই খবর খারাপ আছে তাই তো নিরীহ বাংলাদেশকে ঠকাচ্ছে ভারত। বাংলাদেশের লোকে মেরে কয় নেপাল বুঝিস কিন্তু!!! ----------------------- কিন্তু আমরা যারা খাটি বাংগালী আছি আমরা কিন্তু কম না, আমরাও যুদ্ধ প্রেরণা জাতি।
    Total Reply(0) Reply
  • নাসিম ৫ জুলাই, ২০২০, ১:৪২ এএম says : 0
    একটা চাওয়ালাকে দিয়ে এত বড় একটা দেশ পরিচালনা করা যায়?
    Total Reply(0) Reply
  • মেহেদী ৫ জুলাই, ২০২০, ১:৪২ এএম says : 0
    ভুয়া মোদি সরকারের সবকিছুই ভুয়া।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

১২ আগস্ট, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ