Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ভারত বিরোধিতা করে সঙ্কটে নেপালের প্রধানমন্ত্রী, আজ বৈঠকে হবে ভাগ্য নির্ধারণ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০২০, ৯:৩৩ এএম

ভারত বিরোধিতার জেরে ঘোর সঙ্কটে পড়ে গিয়েছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি অলি। নিজের দলের শীর্ষ নেতারাই দাবি করছেন তার পদত্যাগের। শনিবার সকাল এগারোটায় নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির স্ট্যান্ডিং কমিটির বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। অলির ভাগ্য সেখানেই নির্ধারিত হত। কিন্তু সেই বৈঠক শেষপর্ন্ত স্থগিত হয়ে গিয়েছে। বৈঠক হবে আজ রোববার।
ভারতের বিরোধিতা করতে গিয়ে নিজেই যে নিজের দলে প্রবল বিরোধিতার সম্মুখীন হবেন তা হয়তো বুঝতে পারেননি নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি অলি। সম্প্রতি ভারতের উত্তরাখণ্ডের কাছে বিতর্কিত তিনটি এলাকা নেপালের ম্যাপে স্থান দিয়ে নতুন মানচিত্র সংসদে পাশ করিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। সে সময় দলের সবাই তাকে সমর্থন করলেও তার কয়েকদির পরেই অলি দাবি করেন, নেপালের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে মিলে তাকে উচ্ছেদ করার ছক কষেছে ভারত। নেপালের বিভিন্ন হোটেল ও ভারতীয় দূতাবাসে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। এর সঙ্গে জড়িত দেশের কিছু নেতাও।
তার এই দাবি এখন সত্যি হতে শুরু করেছে। যারা তাকে সমর্থন দিয়েছিলেন, তাদের বেশিরভাগই এখন ডিগবাজি দিয়ে উল্টো ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ করার জন্য অলিকে দোষারোপ করছেন। তারা বলছেন যে, চীনের প্ররোচনায় পা দিয়ে অলি যেসব মন্তব্য ভারতের বিরুদ্ধে করেছেন তা রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক ভাবে কখনওই সমর্থন করা যায় না। এতেই বোঝা যায়, নেপালে ভারতের কতোটা প্রভাব রয়েছে এবং তাদের দাদাগিরি না মানলে সেখানে টিকে থাকা কঠিন। সূত্র: কাঠমান্ডু পোস্ট।



 

Show all comments
  • AVIJIT PAUL ৬ জুলাই, ২০২০, ১১:৪৯ এএম says : 0
    চীনের খপ্পরে যে যে দেশ পরছে সবাই এখন বুঝতে পারছে কি ভাবে তাদেরকে চীন অজগর সাপের মতন পেচিয়ে গিলে খাচ্ছে। সাপ কে বিশ্বাস করা যায় তবু চীন কে নয়। সাম্রাজ্যবাদ, দমন পীড়ন নীতি সবরকম এই কমিউনিস্ট দেশটি একনায়কতন্ত্রের উপর দাড়িয়ে আছে। নেপালের সাধারন মানুষ ও রাজনৈতিক দলের নেতারা সেটা আজ বুঝেছে বলে ওলির এই ভারতবিরোধী মনোভাবের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে। ভারত শান্তির দেশ, মৈত্রীর দেশ এটা সারা বিশ্বের কাছে প্রমানিত।
    Total Reply(0) Reply
  • K R Nandi ৭ জুলাই, ২০২০, ৬:২৫ এএম says : 0
    We do not think Nepal as other country socially or mentally, we never thought Nepal / nepalees our enemy even we use to say Nepali word.I think there people also think so.
    Total Reply(0) Reply
  • Amal Dasgupta ৭ জুলাই, ২০২০, ১:৪৫ পিএম says : 0
    World should unite against China which is the source of all geopolitical and military instability in the world. Like Nazis in Germany, the communist government in China should be removed. Only then peace will prevail in the world.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত-নেপাল

১৫ আগস্ট, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ