Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

গোপালগঞ্জে পিটিয়ে শরীরে গরম পানি ঢেলে ও শুকনা মরিচের গুড়া ছিটিয়ে সৎমাকে হত্যা

গোপালগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০২০, ১০:০৫ এএম

গোপালগঞ্জে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পিটিয়ে, শরীরে গরম পানি ঢেলে ও শুকনা মরিচের গুড়া ছিটিয়ে সৎমা কলসুম বেগমকে (৬০) নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।
কোটালীপাড়া উপজেলার রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের রাজিন্দারপাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিতে কলসুম বেগম খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারাযান। এ ঘটনায় গতকাল রাতে কোটালীপাড়ায় থানায় ৭ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ শনিবার রাতে অভিযান চালিয়ে ৪ নারীকে গ্রেফতার করেছে।
কলসুম বেগম কোটালীপাড়া উপজেলার রাজিন্দারপাড় গ্রামের সবর আলী সিকদারের দ্বিতীয় স্ত্রী।
কলসুম বেগমের ভাই স্কুল শিক্ষক কালাম ফকির জানান, সৎ ছেলেদের সাথে জমিজমা নিয়ে কলসুমের বিরোধ চলে অসিছিলো। কলসুমকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার জন্য শনিবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে সৎ ছেলে আলাউদ্দিন সিকদার তার স্ত্রী রোকেয়া বেগম তার মেয়ে লিমা সিকদার আলাউদ্দিনের ভাই রিপন সিকদার কলসুমের ওপর হামলা করে। তাকে পিটিয়ে মাথা ফাঁটিয়ে গায়ে গরমপানি ঢেলে ও শুকনা মরিচের গুড়া ছিটিয়ে দেয়। কলসুমের ২ ছেলে ও ছেলের বউ তাকে উদ্ধারের জন্য এগিয়ে আসলে তাদেরও মারপিট করা হয়। পরে তাদের শরীরেও গরমপানি ঢেলে মরিচেরগুড়া ছিটিয়ে দেয়া হয়। ওই স্কুল শিক্ষক আরো জানান, তার বোন কলসুমকে উদ্ধার করে প্রথম কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, পরে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল ও বিকেলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত সাড়ে ৮ টার দিকে সে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। আমরা এ নির্মম হত্যাকান্ডের বিচারচাই।
কোটালীপাড়া থানার ওসি শেখ লুৎফর রহমান বলেন, এ ঘটনায় শনিবার রাতেই ৭ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। রাতেই অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত ৪ নারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। প্রাথমিক তদন্তে ধারনা করা হচ্ছে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ