Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

শিরোপার পথে আরেক ধাপ এগুলো রিয়াল

ভিয়ারিয়ালকে হারিয়ে ব্যবধান কমাল বার্সা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জুলাই, ২০২০, ৭:৪৮ পিএম

স্প্যানিশ লা লিগায় শিরোপা পুনরুদ্ধারের পথে আরেক ধাপ এগিয়ে গেল রিয়াল মাদ্রিদ। রোববার তারা অ্যাথলেটিক বিলবাওকে তাদের মাঠেই হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রাখলো। এদিন সান মামেসে রিয়া ল মাদ্রিদ ১-০ গোলে হারায় অ্যাথলেটিক বিলবাওকে। রিয়ালের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন সের্হিও রামোস। তার সফল স্পট কিকে জয় তুলে নিলো জিনেদিন জিদানের দল। এই জয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনাকে ৭ পয়েন্টে পেছনে ফেলল রিয়াল। ৩৪ ম্যাচে ২৩ জয়, আট ড্র ও তিন হারে রিয়ালের পয়েন্ট ৭৭।

অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে থেলতে নেমে ম্যাচের চতুর্থ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ পায় রিয়াল। মার্কো আনেসিওর ফ্রি কিক গোলরক্ষক ঝাঁপিয়ে ফিরিয়ে দিলে আলগা বল ডান দিকে পেয়ে অরক্ষিত করিম বেনজেমাকে ক্রস দেন দানি কারভাহাল। কিন্তু বল একটু উঁচুতে থাকায় ঠিকমতো হেড করতে পারেননি ফরাসি ফরোয়ার্ড। দুই মিনিট পর রিয়ালের রক্ষণে ভীতি ছড়ান ইনাকি উইলিয়ামস। ছুটে এসে তার শট ফেরান মার্সেলো। ১৬ মিনিটে রাউল গার্সিয়ার হেড ঠেকিয়ে জাল অক্ষত রাখেন রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়া। বেনজেমা প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে আসেনসিওর ক্রসে আরেকটি সুযোগ পেলেও ঠিকমতো হেড নিতে পারেননি। গোলশূণ্য প্রথমার্ধ শেষে বিরতির পরও অধিকাংশ সময় বল দখলে রেখে প্রতিপক্ষকে চাপে রাখে রিয়াল। তবে তাদের আক্রমণে তেমন ধার ছিল না। অবশেষে কাঙ্খিত গোলের দেখা পায় স্পেনের সফলতম দলটি। ম্যাচের ৭৩ মিনিটে স্পট কিকে দলকে এগিয়ে নেন রামোস। এসময় ডি-বক্সে মার্সেলো ফাউলের শিকার হলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। আর স্পট কিক থেকে গোল করে দলকে আনন্দে ভাসান রামোস (১-০)। লিগের শেষ ১২ ম্যাচে এটা রামোসের সপ্তম গোল। ৮৮ মিনিটে গোল পেতে পারতেন বেনজেমা। তবে ভিনিসিউস জুনিয়রের সঙ্গে বল আদান-প্রদান করে শট নিলেও বেনজেমার শট পা বাড়িয়ে রুখে দেন উনাই সিমোন।

ম্যাচের যোগকরা সময়ে কর্নারে রিয়ালের রক্ষণে ভীতি ছড়ায় বিলবাও। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সফলতা পায়নি তারা। ফলে এই জয়ে বিলবাওয়ের মাঠে জয় খরা কাটানোর পাশাপাশি শিরোপার সুবাস নিয়ে মাঠ ছাড়ে জিদানের দল।

এর আগে এই মাঠে রিয়াল সবশেষ জিতেছিল ২০১৭ সালের মার্চে ২-১ গোলে। তখনই শেষ লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল তারা। গত আসরে ১-১ ও তার আগের আসরে গোলশূন্য ড্র করে ঘরে ফেরে রিয়াল মাদ্রিদ।

অন্যদিকে রোববার রাতে ভিয়ারিয়ালকে উড়িয়ে দিয়ে পয়েন্ট টেবিলে ব্যবধান বার্সেলোনা। শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকতে রিয়াল মাদ্রিদের ওপর চাপ ধরে রাখতে এদিন জয়ের বিকল্প ছিল না বার্সার। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে আলো ছড়ালেন আক্রমণভাগের তিন তারকা লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেস ও অঁতোয়ান গ্রিজমান। ভিয়ারিয়ালের মাঠে এ ম্যাচে বার্সা ৪-১ গোলের জয় তুলে নিয়ে রিয়ালের সঙ্গে ব্যবধান ৪ পয়েন্টে নামিয়ে আনলো। আত্মঘাতী গোলে বার্সেলোনা এগিয়ে যাওয়ার পর সমতা ফেরান জেরার্ড মরেনো। পরে সুয়ারেস ও গ্রিজমানের দারুণ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় সফরকারীরা। ম্যাচের শেষ দিকে চতুর্থ গোল করেন আনসু ফাতি। গত আসরে এই মাঠে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে হারতে বসেছিল বার্সেলোনা। তবে শেষ পর্যন্ত যোগকরা সময়ে মেসি ও সুয়ারেসের গোলে ৪-৪ ব্যবধানে করে ফিরেছিল চ্যাম্পিয়নরা।

ভিয়ারিয়ালকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে ৩৪ ম্যাচে ২২ জয়, ৭ ড্র ও ৫ হারে ৭৩ পয়েন্ট পেয়ে তালিকার দ্বিতীয়স্থানে থাকলো বার্সা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন