Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

১১৬ দিন পর মাঠে ক্রিকেট

‘লকডাউনে বেড়েছে বন্ধন’ : আজ থেকে ইংল্যান্ড-উইন্ডিজ প্রথম টেস্ট

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

সিরিজ খেলতে এক মাস আগে ইংল্যান্ড পৌঁছেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মূল সিরিজ শুরু হবে আজ থেকে। তার আগে করোনাভাইরাসের জন্য বদলে যাওয়া পরিস্থিতিতে আইসোলেশন, কোভিড-১৯ পরীক্ষাসহ নানান স্বাস্থ্য সুরক্ষার ধাপ পেরোতে হয়েছে ক্যারিবিয়ানদের। থাকতে হয়েছে হোটেলে বন্দি। আর এতে ক্রিকেটারদের মধ্যে বন্ধন বেড়েছে বলে মনে করছেন কোচ ফিল সিমন্স।
সাউদাম্পটনে কয়েক ঘণ্টা পরই শুরু হচ্ছে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট। করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় চার মাস বন্ধ থাকার পর এই সিরিজ দিয়েই ফিরছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। সবশেষ ক্রিকেট মাঠে ছিল চলতি ১৩ মার্চ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিডনিতে ওয়ানডেটি ৭১ রানে জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া। এর পর কেটে গেছে ১১৫ দিন। ঠিক ১১৬ দিন পর মাঠে গড়াচ্ছে ২২ গজি লড়াই।
ভিন্ন এক বাস্তবতার মধ্যে দিয়ে যাওয়া সিমন্স সিরিজ শুরুর আগে বললেন, এই পরিবর্তিত পরিস্থিতিরও আছে ইতিবাচক দিক, ‘মাসখানেকের লকডাউন আমাদের জন্য খুব কাজে দিয়েছে। স্কোয়াডের সবাই একসঙ্গে থাকায় সবার মধ্যে বোঝাপড়া হয়েছে বেশ। এখন বন্ধনটা দৃঢ়। আমরা কয়েকদিন হোটেলের বাইরে বের হতে পারিনি। কাজেই একসঙ্গে থাকা, আড্ডা দেওয়া, জিম করা- এসব কাজে দিয়েছে।’
তবে ইতিবাচকের দিকের পাশাপাশি নতুন অনেক পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার চ্যালেঞ্জও রয়েছে সামনে। সেজন্য মনোজগতে বড় ধরনের বদল আনার তাগিদ দেখছেন ক্যারিবিয়ান কোচ, ‘আবার মাঠে নামতে আমাদের মন-মানসিকতায় বড় বদল আনতে হবে। স্বাভাবিক সময়ে ভক্ত-সমর্থকরা গ্যালারি থেকে উৎসাহ যোগান। এখন নিজেদেরই নিজেদেরকে অনুপ্রাণিত করতে হবে। লালা নিষিদ্ধ হওয়ার ব্যাপারটাও সামলাতে হবে। শীতের কন্ডিশনেও বোলাররা অনেক ঘামে। কাজেই ঘাম একটা বিকল্প হতে পারে।’
দুজনের বয়সের ব্যবধান ২৫ বছর। তবে একটা বড় মিল, দুই যুগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেস আক্রমণের কাÐারি দুজন। বোলিংই কাছাকাছি এনেছে কোর্টনি ওয়ালশ ও কেমার রোচকে, গড়ে উঠেছে বন্ধুত্ব। রোচ এখন দাঁড়িয়ে ২০০ টেস্ট উইকেটের সামনে। ওয়ালশের বিশ্বাস, চোটে না পড়লে ৩০০ উইকেট পর্যন্ত অনায়াসেই যেতে পারবেন এই পেসার।
২০০ উইকেট ছুঁতে রোচের প্রয়োজন আর ৭ উইকেট। ১৯৯৪ সালের মার্চে কার্টলি অ্যামব্রোস ছুঁয়েছিলেন এই মাইলফলক। অ্যামব্রোস পরে ৪০০ উইকেট ছাড়িয়ে গেছেন, ওয়ালশ ছাড়িয়েছেন ৫০০। কিন্তু গত ২৬ বছরে আর কোনো ক্যারিবিয়ান বোলার স্বাদ পাননি ২০০ ছোঁয়ার। রোচকে দিয়ে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটের দীর্ঘ খরা কাটতে যাচ্ছে, ইসএসপিএনক্রিকইনফোকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় ওয়ালশ বেশ উচ্ছ¡সিত, ‘দুর্দান্ত এক মাইলফলক এটি। আরেকজন ওয়েস্ট ইন্ডিয়ানকে এই বন্ধনীতে (২০০ টেস্ট উইকেট) পাওয়া দারুণ ব্যাপার। কেমার সবসময়ই আমার বন্ধু, আমি ওর জন্য খুব খুশি। ওর মাইলফলকের অপেক্ষায় তর সইছে না আমার। আশা করি, খুব বেশি সময় লাগবে না ওর এই পথটুকু যেতে। সিরিজের প্রথম টেস্টেই যদি করে ফেলতে পারে, তাহলে দারুণ হবে। কারণ এরপর ও নির্ভার থেকে টেস্ট সিরিজ উপভোগ করতে পারবে।’
সপ্তাহখানেক আগেই ৩২ বছর পূর্ণ করেছেন রোচ। ওয়ালশের মতে, ৫৬ টেস্ট খেলা রোচ এখন আগের চেয়ে অনেক পরিণত, ‘সে এমন একটা পর্যায়ে পৌঁছেছে, যেখানে সে নিজের খেলাটা বোঝে, জানে কী করতে চায় এবং কীভাবে এগোতে হয়। যেদিন এটা কাজে লাগে, সেদিন ফল মেলে। এখন সে জানে, কীভাবে একজন ব্যাটসম্যানকে ফাঁদে ফেলার জন্য তৈরি করতে হয়। ওর ধৈর্য এখন অনেক অনেক ভালো। কখনও কখনও একজন ফাস্ট বোলার ধৈর্য ধরতে পারে না এবং প্রতি বলেই উইকেট নিতে চায়। কিন্তু ক্রিকেটে সেভাবে হয় না। সেরকম দিন এখনও আসবে। তবে এখন তার ধৈর্যই বলে দিচ্ছে, সে টিকে থাকবে এবং জানে যে কোন পথে লক্ষ্য অর্জন করতে হয়। আমার মতে, এই কারণেই সে এখন ধারাবাহিক। সে এখন সত্যিকারের গ্রেট। তার অর্জই তা বলে দিচ্ছে।’
ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে এখনও পর্যন্ত ২০০ টেস্ট উইকেট নিতে পেরেছেন ৮ জন বোলার। ৫১৯ উইকেট নিয়ে চ‚ড়ায় ওয়ালশ। টেস্ট ইতিহাসে ৫০০ উইকেট শিকারি প্রথম বোলার এই কিংবদন্তির বিশ্বাস, ঠিকভাবে সামলানো গেলে একদিন ৩০০ ছোঁবেন রোচ, ‘ওয়ার্কলোড ব্যবস্থাপনা নিয়ে ভাবতে হবে। সা¤প্রতিক সময়ে যদিও সে সীমিত ওভারের ক্রিকেট খুব বেশি খেলেনি। তবে নিজের মাদদÐ বেঁধে দেওয়া, লক্ষ্য ঠিক করা, এসব নিয়ে তাকেই ভাবতে হবে। ওয়ার্কলোড ব্যবস্থাপনা ঠিকঠাক হলে সে অনায়াসেই ৩০০ উইকেট পেয়ে যাবে।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টেস্ট

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ