Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

বান্দরবনে ব্রাশফায়ারে ৬ জন নিহতের পর থমথমে অবস্থা, যৌথবাহিনীর টহল জোরদার

বান্দরবান থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০২০, ৯:৪১ পিএম

বান্দরবনে সন্তু লারমার গ্রুপের সন্ত্রাসীরা প্রতিপক্ষের ছয়জনকে ব্রাশফায়ারে হত্যার পর থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। বাগমারা সহ পুরো জেলায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘটনার পরপরই সেনাবাহিনীর যৌথ উদ্যোগে নিরাপত্তা বাহিনীর টহল জোরদার করা হয়েছে। হত্যাকারীদের পাকড়াও করতে সেনাবাহিনীর তৎপরতা বৃদ্ধি করা হয়েছে। একের পর এক হত্যাকাণ্ডের জনগণ চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। বাগমারা এলাকায় বাজারসহ সকল দোকানপাট বন্ধ হয়ে গেছে।আতঙ্কে স্থানীয়দের মধ্যে অনেকেই নিরাপদে চলে গেছেন।

এলাকাবাসী জানান, গত দেড় মাস আগে এখানে হামলা করেছিল সন্ত্রাসীরা। কিন্তু কেউ হতাহত হয়নি। দেড় মাস পর পুনরায় হামলা চালালে ছয়জন নিহত হয়।
স্থানীয় ইউপি সদস্য সেম পর
মারমা জানান, সকালে হঠাৎ করেই বাগমারা বাজার পাড়ার পশ্চিম দিক থেকে একটি সশস্ত্র গ্রুপ এলাকায় প্রবেশ করে সংস্কারপন্থী এম এন লারমা গ্রুপের সভাপতির বাসায় অতর্কিত হামলা চালায়। নিহতরা সবাই ওই ঘরে অবস্থান করেছিল। হামলার পর বেশ কিছু সদস্য পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাদেরকে ও গুলি করে হত্যা করা হয়। সকালে নাস্তার খাওয়ার প্রস্তুতির সময় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।এরা সকলেই সন্তু লারমার প্রতিপক্ষ এন এন লারমা গ্রুপের সদস্য ছিল । নিহতরা হলেন ,এম এন লারমা গ্রুপের জনসংহতি সমিতির বান্দরবান জেলা শাখার সভাপতি রতন তঞ্চঙ্গ্যা ৬৫, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ চাকমা ৬২, ডেভিড মারমা ৫৫, জয় ত্রিপুরা ৪০, ত্রিপুরা ৪২, মিলন চাকমা৬০।, ঘটনার সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন নিউ চাকমা ৫০,বিদ্যুৎ ত্রিপুরা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ২৬।
জানা যায়, গত মার্চ মাসে রতন তঞ্চঙ্গ্যাকে সভাপতি করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট বান্দরবানে জনসংহতি সমিতির সংস্কারপন্থী এম এন লারমা গ্রুপের কমিটি গঠন করা হয় ।এ কমিটি গঠনের পর থেকেই জনসংহতি সমিতি সন্তু লারমা গ্রুপের সাথে এন এন লারমা গ্রুপের

মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দ্বন্দ্ব লেগেই ছিল। দ্বন্দ্বের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানান এলাকাবাসী।
উল্লেখ্য যে ,বিগত দুই বছর ধরে বান্দরবনে আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে পাহাড়ি সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ