Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯, ১২ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

২০১৮ সালের মধ্যে ৯৫ শতাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বাপবিবোর্ড

প্রকাশের সময় : ৩১ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

২৯/০৭/২০১৬ ও ৩০/০৭/২০১৬ তারিখ ‘ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দিব-গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করব’ এই শ্লোগান নিয়ে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের আওতাধীন ৭৮টি পবিস-এর জেনারেল ম্যানেজার সম্মেলন বোর্ডের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে দেশের ৭৮টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি এবং বাপবিবোর্ডের মধ্যে ২০১৬-১৭ অর্থ বছরের চবৎভড়ৎসধহপব ঞধৎমবঃ অমৎববসবহঃ (চঞঅ/অচঅ) স্বাক্ষরিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরী কমিশনের চেয়ারম্যান এ আর খান প্রধান অতিথি হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, নিরবচ্ছিন্ন ও মান সম্পন্ন বিদ্যুৎ গ্রাহকদের কাছে পৌঁছাতে হবে। মানুষ বিদ্যুৎ চায়, সরকারও আন্তরিক। বিইআরসি চেয়ারম্যান আরো বলেন, সিস্টেম লস কমিয়ে আনতে হবে। তিনি বলেন, আমরা একটি স্ট্যান্ডার্ড এবং টেস্টিং ল্যাবরেটরী স্থাপনের কাজ করে যাচ্ছি। এতে বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম ও মালামালের সুষ্ঠু গুণগত মান বজায় রাখা সম্ভব হবে। বিইআরসি চেয়ারম্যান বলেন, সরকার ২০২১ সালের মধ্যে শতভাগ এলাকায় বিদ্যুৎ দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। গ্রামে বিদ্যুৎ গেলে শিল্প কারাখানা স্থাপন হবে। মানুষের আস্থা বাড়বে, আয় বাড়বে। মানুষের জীবনযাত্রার মানও বাড়বে। তিনি বলেন, রক্ষণাবেক্ষণ খরচ আরো কমিয়ে আনতে হবে। তিনি আরো বলেন, সফলতা অর্জনের লক্ষ্যে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সমূহের কার্যক্রমে সকলের দক্ষতা, সক্রিয় অংশগ্রহণ, সক্ষমতা অর্জন ও গ্রাহক সেবা ইত্যাদি বিষয়ে আরও মনোযোগী হওয়ার আহ্বান জানান। এর আগে ৩০/০৭/২০১৬ তারিখ সকালের সেশনে বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব মনোয়ার ইসলাম পবিস-এর জেনারেল ম্যানেজার/পবিস সমূহের বোর্ড সভাপতিগণ ও বাপবিবোর্ডের কর্মকর্তাগণের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন। তিনি বাপবিবো/পবিসসমূহের কর্মকর্তা/ কর্মচারীগণকে সদিচ্ছা, স্বচ্ছতা, সততা ও সচেতনতার সাথে কাজ করার আহ্বান জানান এবং গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করার নির্দেশ প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে বিইআরসি-এর সদস্য রহমান মোর্শেদ, পিজিসিবি’র এমডি মাসুম আল বেরুনী, আরপিসিএল-এর এমডি প্রকৌশলী মোঃ আব্দুস সবুর, ওজোপাডিকো-এর এমডি প্রকৌশলী মোঃ সফিক উদ্দিনসহ বাপবিবোর্ডের সদস্যগণ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন স্বাগত বক্তব্য রাখেন এবং ৭৮টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সার্বিক কর্মকা-ের বর্তমান অবস্থান, লক্ষ্যমাত্রা ও অর্জন, শিল্প সংযোগ ও অর্থনৈতিক অঞ্চল (ইঊতঅ) বিদ্যুতায়নের সর্বশেষ অবস্থা, রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়ন পরিকল্পনা, এডিপি (অউচ) বাস্তবায়ন ও অগ্রগতি, ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে কেপিআই লক্ষ্যমাত্রাসহ অন্যান্য ক্ষেত্র যেমন- নতুন সংযোগ, লাইন নির্মাণ, সিস্টেম লস, বকেয়া আদায় ইত্যাদি বিষয়ে নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাদি উপস্থাপন করেন। এছাড়া, ট্যারিফ (ক্রয় ও বিক্রয়/ইউনিট), আয়-ব্যয়ের বিবরণী ও সচ্ছল/অসচ্ছল সমিতির তথ্যাবলীসহ নিরাপত্তা জোরদার, দুর্নীতি প্রতিরোধ, গ্রাহক সেবা নিশ্চিতকরণ, ফেসবুক চালু করা ইত্যাদি ক্ষেত্রসমূহ গুরুত্ব সহকারে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে উপস্থিত পবিস-এর জেনারেল ম্যানেজার ও পবিস বোর্ড সমূহের সভাপতিগণকে তাগিদ দেন। এছাড়া তিনি বাপবিবোর্ডের চলমান প্রকল্প ও প্রস্তাবিত প্রকল্পসমূহের সর্বশেষ অবস্থা উপস্থিত সকলের সামনে তুলে ধরেন। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ২০১৮ সালের মধ্যে ৯৫ শতাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বাপবিবোর্ড
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ