Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

নতুন পথচলায় বৃষ্টির বাগড়া

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

সারা বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীদের অপেক্ষার পালা শেষ হয়ে গেছে আরও প্রায় দুই মাস আগে। এবারে উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে ক্রিকেটভক্তদের মুখ। দীর্ঘ ১১৭ দিন পর মাঠে ফিরেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। গতকালই আইসিসির নতুন কোভিড-১৯ নীতিমালা অনুসরণ করে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে মুখোমুখি হয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
সাউদাম্পটনের এইজেস বোলে বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টায় প্রথম দিনের খেলা শুরু হবার কথা থাকলেও ভারী বর্ষনে ভেস্তেই জেতে বসেছিল আকাঙ্খিত এই মুহূর্তটি। তবে দিনটি ভেসে যাবার শঙ্কা কাটিয়ে সন্ধ্যা ৭টায় হয় টস। তাতে জিতে সাড়ে ৭টায় ব্যাটিংয়ে নামে ইংল্যান্ড। মাত্র ৪.১ ওভার খেলা হবার পরই ফের হানা দেয় বেরসিক বৃষ্টি। রিপোর্টটি লেখা পর্যন্ত (রাত সাড়ে ৮টা) শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের বলে বোল্ড হওয়া ওপেনার ডম সিবলের (০) উইকেটিট হারিয়ে ৩ রান তোলে স্বাগকিতরা। সিরিজের পরের দুই টেস্ট হবে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে।
ইংল্যান্ডে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে সামনে থেকে যারা লড়াই করছেন, তাদের প্রতি সম্মান জানিয়ে ইসিবি এই সিরিজের নামকরণ করেছে ‘রেইজ দ্য ব্যাট’। ‘বায়োসিকিউর বাবল’ অর্থাৎ জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে ও দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে হবে সিরিজের সবগুলো ম্যাচ। বর্ণ বৈষম্যের প্রতিবাদে বিশ্বজুড়ে চলমান আন্দোলনের সমর্থনে দুই দল তাদের জার্সিতে ব্যবহৃত হচ্ছে ‘বø্যাক লাইভস ম্যাটার’ লোগো।
প্রায় চার মাস আগে অনুষ্ঠিত হয়েছিল সবশেষ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ। গেল ১৩ মার্চ ৫০ ওভারের লড়াইয়ে সিডনিতে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া ৭১ রানে হারিয়েছিল প্রতিবেশী নিউজিল্যান্ডকে। এরপর বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে তৈরি হয় অচলাবস্থা, আরও অনেক কিছুর মতো বন্ধ হয়ে যায় ক্রিকেট। এই সময়ের মধ্যে মোট ২৫টি সিরিজ স্থগিত বা বাতিল হয়ে গেছে। এর মধ্যে রয়েছে চারটি টেস্ট সিরিজ, ১২টি ওয়ানডে সিরিজ ও নয়টি টি-টোয়েন্টি সিরিজ। সবমিলিয়ে বাতিল বা স্থগিত হয়েছে মোট ৭৬টি ম্যাচ। যার মধ্যে দশটি টেস্ট, ৩৫টি ওয়ানডে ও ৩১টি টি-টোয়েন্টি। সৌরভ গাঙ্গুলির তথ্য যদি ঠিক হয়, তবে বাতিল হয়ে গেছে এবছরের এশিয়া কাপও। আর অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যম বলছে সপ্তাহান্তেই আসতে পারে টি-২০ বিশ^কাপ স্থগিতেরও ঘোষনা।
তারপওর নতুন করে শুরু করতে পেরেই হাঁফ ছেড়ে বাঁচতে পারে বিশ^ ক্রিকেট। রোমাঞ্চকর এক সিরিজ দিয়েই পুনরূজ্জ্বীবিত হতে যারে ক্রিকেটারদের জীবনযাত্রা। যেমনটা হয়েছে বেন স্টোকসের জীবনে। সন্তান-সম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে ছুটি নিয়েছিলেন নিয়মিত অধিনায়ক জো রুট। তাদের কোল আলো করে ঘরে এসেছে কন্যা সন্তান। গতকালই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ছবি দিয়েছেন নবাগত রাজকন্যাসহ নিজের। লিখেছেন, ‘আমরা সকলেই ম্যাচটি উপভোগের জন্য বসে আছি।’ ২০১৪ সালের পর এই প্রথম ইংল্যান্ডের কোনো টেস্টে খেলছেন না তিনি। সহ-অধিনায়ক স্টোকস ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে নেতৃত্ব দেবেন দেশকে। তবে দূরে থাকলেও ছায়া হয়েই আছেন রুট। প্রথম টেস্টে নেতৃত্ব দিতে যাওয়া এই অলরাউন্ডারকে নিয়মিত অধিনায়ক বলেছেন, নিজের মতো করে দায়িত্ব পালন করতে। আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে স্টোকস জানালেন, চার শব্দের ছোট্ট একটা বার্তায় নেতৃত্বের অভিষেকের আগে সেরা পরামর্শটিই রুটের কাছ থেকে পেয়েছেন স্টোকস, ‘গতকাল টেস্ট বেøজার পরে ছবি তোলা শেষে আমি সবচেয়ে সেরা বার্তাটা পেয়েছি। রুটি (জো রুট) বেøজারের হ্যাঙ্গারে একটা বার্তা লিখে গেছে, লেখা ছিল, ‘নিজের মতো করে করো’। আমি তার ওপর খুব বেশি নির্ভর করছি না, তবে আমি জানি যখনই টেস্ট শুরু হবে, সে বাসা থেকে দেখবে। যদি আমার প্রয়োজন হয়, জানি তার ফোন আমার জন্য সবসময় উন্মুক্ত।’
ইংল্যান্ড যতটা সুসজ্জিত, ঠিক তার উল্টো চিত্র উইন্ডিজে। মাঠের ক্রিকেটে উত্তেজনার তেমন কোনো রসদ দেখতে পাচ্ছেন না ব্রায়ান লারা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এই টেস্টে পাঁচ দিন টিকতে পারবে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ বলে মনে করেন দেশটির কিংবদন্তি। তাইতো উত্তরসূরিদের চার দিনের মধ্যেই জেতার চেষ্টার পরামর্শ দিলেন তিনি। সফরকারী দলের বোলিং লাইন-আপ বেশ শক্তিশালী। তবে ব্যাটিং নিয়ে রয়েছে দুঃশ্চিন্তা। সবশেষ ২০১৭ সালের ইংল্যান্ড সফরের পর থেকে ১৯ টেস্টে দলটির ব্যাটসম্যানরা রান করেছেন মাত্র ২৩.৫৯ গড়ে। লারা জানেন, ঘরের মাঠে ইংলিশদের হারানো কতটা কঠিন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ১৩১ টেস্টে ১১ হাজার ৯৫৩ রান করা সাবেক এই তারকা মনে করেন, সিরিজ নির্ভর করছে ক্যারিবিয়ানরা কত দ্রæত ইংলিশ কন্ডিশনে খাপ খাইয়ে নিতে পারে তার ওপর, ‘আমি মনে করি না, ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাঁচ দিন টিকবে। তাই ম্যাচগুলো তাদের চার দিনের হিসেবে নেওয়া উচিত। শুরুতেই তাদের আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করতে হবে এবং তা বজায় রাখতে হবে।’
সিরিজের প্রস্তুতির জন্য গত ৯ জুন থেকে ইংল্যান্ডে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল। উইজডেন ট্রফির বর্তমান চ্যাম্পিয়ন তারাই; গত বছর ঘরের মাঠে তারা ইংলিশদের হারিয়েছিল ২-১ ব্যবধানে। তবে ১৯৮৮ সালের পর থেকে ইংল্যান্ডে সিরিজ জিততে পারেনি দলটি। বহুদিন পর ক্রিকেট ফেরার সিরিজটিতে দারুণ লড়াই আশা করছেন টেস্টে ৩৪ সেঞ্চুরির মালিক লারা, ‘এটা এমন একটা সিরিজ হতে যাচ্ছে যার দিকে সারা বিশ্বের নজর থাকবে এবং সবাই প্রতিযোগিতাম‚লক একটা সিরিজ দেখার অপেক্ষায় আছে। তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিততে পারলে ক্যারিবিয়ানদের জন্য তা বিশেষ কিছু। সিরিজের প্রথম দিনে যদি তারা ভালো খেলে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পারফরম করার দৃঢ়তা যদি দেখাতে পারে, তাহলে সেটাই হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাফল্যের চাবিকাঠি।’


যা কিছু নতুন...
করোনাভাইরাস মহামারির মাঝে ক্রিকেট গড়ালেও খেলোয়াড়দের সুরক্ষা যেন নিশ্চিত করা যায়, সেজন্য গেল মাসে অন্তবর্তীকালীন কিছু নিয়মের অনুমোদন দিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা। প্রথমবারের মতো সেগুলোর প্রয়োগ ঘটতে দেখা যাবে এই সিরিজে-

বলে লালা ব্যবহার নিষিদ্ধ : বলের ঔজ্জ্বল্য ধরে রাখতে অথবা বলকে চকচকে করতে লালা ব্যবহার করতে পারবেন না খেলোয়াড়রা। প্রতি ইনিংসে একটি দলকে সর্বোচ্চ দুবার সতর্ক করা হবে। এরপরও একই কাজ করলে পেনাল্টি হিসেবে ৫ রান প্রতিপক্ষ দলের ইনিংসে যোগ হবে। কেউ লালা ব্যবহার করার সঙ্গে সঙ্গে আম্পায়াররা বল জীবাণুমুক্ত করার নির্দেশ দেবেন। এরপর পুনরায় খেলা শুরু করা যাবে।

কোভিড-১৯ বদলি : টেস্ট চলাকালীন কোনো ক্রিকেটারের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হলে, তার জায়গায় বদলি নামাতে পারবে সংশ্লিষ্ট দল। এক্ষেত্রে ‘কনকাশন বদলি’র নিয়মই অনুসরণ করা হবে। অর্থাৎ বদলি ক্রিকেটার হবেন একই ধরনের; ব্যাটসম্যানের পরিবর্তে ব্যাটসম্যান, বোলারের পরিবর্তে বোলার। যার অনুমোদন দেবেন ম্যাচ রেফারি।

স্থানীয় ম্যাচ অফিসিয়াল : করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বিশ্বের অধিকাংশ দেশে ভ্রমণের ওপরে বিধিনিষেধ রয়েছে। তাই নিরপেক্ষ অফিশিয়াল দিয়ে আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনার নিয়মটি আপাতত বাতিল করা হয়েছে। এই ম্যাচের পাঁচ অফিশিয়ালই ইংল্যান্ডের। মাঠে দায়িত্ব পালন করবেন রিচার্ড ইলিংওর্থ ও রিচার্ড কেটেলবোরো। টিভি আম্পায়ার হিসেবে থাকছেন মাইকেল গফ। ম্যাচ রেফারি হলেন ক্রিস ব্রড। আর রিজার্ভ আম্পায়ার রাখা হয়েছে অ্যালেক্স ওয়ার্ফকে।

বাড়তি ডিআরএস রিভিউ : প্রতি ইনিংসে বাড়তি একটি ডিআরএস রিভিউ যুক্ত করা হয়েছে। অর্থাৎ টেস্টের প্রতি ইনিংসে রিভিউ থাকবে মোট তিনটি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট


আরও
আরও পড়ুন