Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

শেরপুরে ব্রিজ নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগে সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী ও উপসহকারী প্রকৌশলী বদলি, চলছে তদন্ত

শেরপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ জুলাই, ২০২০, ৯:২৮ পিএম

শেরপুর-জামালপুর আঞ্চলিক মহাসড়কে দুটি ব্রীজ নির্মানে অনিয়মের অভিযোগে সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী ও উপসহকারী প্রকৌশলীকে বদলি করা হয়েছে। একই সাথে এ ঘটনার জন্য করা হচ্ছে তদন্ত।
শেরপুরে দুইটি সেতুর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করতে গিয়ে নি¤œমানের কাঁচামাল ব্যবহারের অভিযোগে সম্প্রতি নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন শেরপুর সদর-১ আসনের এমপি ও সরকার দলীয় হুইপ আতিউর রহমান আতিক। বন্ধ করার ক’দিন পর সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয় একজন উপ-সচিব ও একজন সহকারি সচিবসহ দুই সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত টিম বুধবার (৮ জুলাই) ও বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) শেরপুর-জামালপুর কজওয়েতে উপ-সচিব মোঃ আজিজুর রহমান ও সহকারি সচিব মাহবুব-এ-এলাহী’র নেতৃতে তদন্ত শুরু করেন। তদন্তে নি¤œমানের অভিযোগ সত্যতা পাওয়া পায়। পরে সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী শেরপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান উদ্দিন আহমেদকে ফেনী জেলায় এবং উপ-সহকারি প্রকৌশলী মোঃ আজাহারুল ইসলাম আজাদকে মেহেরপুর জেলায় বদলির আদেশ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেন।
এসময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তদন্ত টিমের প্রধান উপ-সচিব মোঃ আজিজুর রহমান বলেন, এই সড়কের নির্মাণ কাজের কোন কাটিং করা হয়েছে এবং সেতুর পাইলিং ঢালাইয়ের ব্যবহৃত নির্মাণ সামগ্রী ল্যাবে টেস্টের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে শুধু ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মোজাহার এন্টারপ্রাইজ (প্রাঃ) লিমিটেড নয় এই কাজের সাথে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে। তিনি আরো জানান, আমাদের এক্সপার্টগনও আসছেন, সবার মতামত নিয়েই ব্যবস্থা নেয়া হবে।
উল্লেখ্য, জামালপুর-শেরপুর-বনগাঁও (আর-৪৬০) সড়কের শিমুলতলী ও পোড়াদাহ এলাকায় আঠারো মাসের প্রকল্প মেয়াদে শিমুলতলী সেতুতে ১২৫.৪৯৭ মিটার দৈর্ঘ্যে ১৮ কোটি ৭৫৮ লক্ষ টাকা ও পোড়াদাহ সেতুতে ১২৫.৪৯৯ মিটার দৈর্ঘ্যে ২০ কোটি ৯২৩ লক্ষ টাকা প্রকল্প মূল্য ধরা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অনিয়ম

২২ মার্চ, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ