Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

আকরামের মুক্তির দাবি জানিয়েছে বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ জুলাই, ২০২০, ১১:৫৮ পিএম

ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদকবিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আকরামুল হাসান মিন্টুকে বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) নরসিংদী থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাকে গ্রেফতারের ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে মুক্তির দাবি জানিয়েছে বিএনপি। এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, করোনা মোকাবেলায় সকল ক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে আওয়ামী সরকার আরো বেশি আগ্রাসী নাৎসীবাদী পথ অবলম্বন করে বিরোধী দলকে নিঃশেষ করার কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। আকরামকে গ্রেফতার তারই বর্ধিত প্রকাশ। সরকার দলের লোকেরা এই করোনাকালেও দুর্নীতি, লুটপাট ও আত্মসাতের কাজে খুব উৎসাহ নিয়ে সারাদেশ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। আমরা এই সমস্ত অনাচারের প্রতিফলন প্রতিদিন দেখছি সংবাদপত্রের পাতায় পাতায়। এই ক্রান্তিকালে দেশকে এক ভয়াবহ অরাজকতার দিকে ঠেলে দিয়েছে তারা। দেশকে বিএনপিশূণ্য করাই যেন আওয়ামী শাসকগোষ্ঠীর এখন প্রধান লক্ষ্য।

তিনি বলেন, বিএনপি’র বিরুদ্ধে মিথ্যা ও কাল্পনিক কাহিনী তৈরী করে মামলা দায়ের ও গ্রেফতার করা হচ্ছে, এই জন্য যে সরকারি অনাচারের বিরুদ্ধে কেই যেন টু শব্দ না করতে পারে। ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান মিন্টুকে গ্রেফতার বর্তমান সরকারের এক ঘৃণ্য অপকর্ম। এই সরকারের হাত থেকে বিএনপিসহ বিরোধীদল ও মতের মানুষরা কেওই রেহাই পাচ্ছে না। সরকারের স্বর্বগ্রাসী থাবায় নেতাকর্মীদের জেল-জুলুমের শিকার হতে হচ্ছে। সেদিন খুবই নিকটবর্তী যেদিন বর্তমান সরকারের কুশাসনের মুলোৎপাটন ঘটবে। বিএনপি মহাসচিব অবিলম্বে আকরামুল হাসান মিন্টুর মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে নিঃশর্ত মুক্তির জোর জানান।

এদিকে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী জানান, আকরামুল হাসান মিন্টুর গ্রেফতারের ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তিনি অবিলম্বে তার মুক্তি দাবি করেন। রিজভী বলেন, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেছেন, বর্তমান সরকার পরিকল্পিতভাবে নিজেদের সৃষ্ট অনাচার এবং করোনার মহামারীর অভিঘাতে দেশব্যাপী দূর্ভিক্ষের ছায়া আড়াল করার জন্যই সাবেক আকরামুল হাসান মিন্টুকে গ্রেফতার করেছে। করোনা মাহমারি সামাল দিতে না পারা এবং করোনার কারণে স্বাস্থ্যখাতে অব্যবস্থাপনার যে নগ্নরূপ উন্মচিত হয়েছে তা ভায়াবহ। দেশব্যাপী সর্বসেক্টরের দুর্নীতি নয়, কেবল স্বাস্থ্যখাতে দুর্নীতির যে বিভৎস চিত্র দৃশ্যমান হয়েছে তাতে বর্তমান সরকার যে জনগণের শত্রুপক্ষ সেটি দিনের আলোরমতো সুস্পষ্ট। করোনাকে কেন্দ্র করে অসহায় দরিদ্র মানুষের মাঝে সরকারি ত্রাণ নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের লোকেরা যে তেলেসমাতি করেছে তাতে বর্তমান সরকারের দুর্বৃত্ত তোষনের আসল চেহারাটি ফুটে উঠেছে। সরকার তাদের দুঃশাসনের প্রতিপক্ষ মনে করে দেশের আদর্শবাদী তরুণ সমাজকে। সেজন্যই আকরামুল হাসান মিন্টুকে গ্রেফতার করা হয়েছে, যাতে উদ্দীপ্ত তারুণ্য বর্তমান দুঃশাসনের বিরুদ্ধে সাহসী সংগ্রামে এগিয়ে যেতে না পারে। দেশের তরুণ সমাজকে ভয়াবহ দুঃশাসনের যাঁতাকলে পিষ্ট করার উদ্দেশ্যই হচ্ছে নিজেদের অবৈধ ক্ষমতা কন্টকমুক্ত করা। তরুণ সমাজকে ভয় পাইয়ে দেওয়ার জন্যই এই ভায়বহ প্রকৃতিক দুর্যোগের সময় মিথ্যা মামলা ও গ্রেফতারের হিড়িক চলছে। কিন্তু বর্তমান সরকার জানেনা যে, অনাচার, অবিচার ও লুটপাটকারীদের পৃষ্টপোষক সরকারকে পরাজিত করতে তারুণ্যকে কোনভাবেই দমন করে রাখা যাবেনা। অন্যায়ের বিরুদ্ধে চিরন্তন দ্রোহ হচ্ছে তরুণ সমাজ। জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ধ্বংস করতে সরকারের নীলনক্শা বাস্তবায়ন করার গভীর ষড়যন্ত্র প্রতিহতের জন্য জনগণ এখন আরো বেশী ঐক্যবদ্ধ। গুম, খুন, অপহরণ, বিচার বহির্ভূত হত্যাকা- এবং চাল-ডাল-তেল-পিঁয়াজ-লবনসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতির পাশাপাশি দফায় দফায় গ্যাস-বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও পানির মূল্যবৃদ্ধিতে জনরোষকে চাপা দেয়ার জন্যই দেশব্যাপী বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদেরকে পাইকারী হারে গ্রেফতার অভিযান চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ