Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সাকিবের এক দশক পর হোল্ডার

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

দুর্দান্ত একটি দিন কাটল ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের। নিলেন তিনটি সফল রিভিউ। ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে পেলেন ছয় উইকেট। এই অলরাউন্ডারের আলো ঝলমলে দিনে সাউদাম্পটন টেস্টে ইংল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে দিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে সফরকারীদের সংগ্রহ ছিল ১ উইকেটে ৫৭ রান। সেখান থেকে গতকাল নিজের ১৮তম টেস্ট ফিফটিতে দলকে ২শ’র পথ দেখিয়েছেন ওপেনার ক্রেইগ ব্রাফেট। রিপোর্টটি লেখা পর্যন্ত ৬০ ওভার শেষে ৫ ইউবেট হারানো উইন্ডিজের সংগ্রহ ১৮৬।
তবে তার আগে করোনাভাইরাস বিরতির পর প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচটি অসাধারণ বোলিংয়ে রাঙিয়েছেন জেসন হোল্ডার। এই ৬ উইকেট নিয়ে গড়লেন বিরল এক কীর্তিও। ইংল্যান্ডে ১০ বছর পর টেস্ট ইনিংসে ৫ উইকেটের স্বাদ পেলেন কোনো অধিনায়ক। সবশেষ এই অভিজ্ঞতা হয়েছিল সাকিব আল হাসানের। হোল্ডারের নিজের আগের ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ছিল ২০১৮ সালে, বাংলাদেশের বিপক্ষে জ্যামাইকায় ৫৯ রানে ৬ উইকেট।
আগের দিনই ইংল্যান্ডকে ২০৪ রানে গুটিয়ে দেওয়া ইনিংসে হোল্ডার ৬ উইকেট নিয়েছেন ৪২ রানে। ২০১০ সালে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ১২১ রানে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন সেই সময়ের বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব। হোল্ডার আর সাকিবের পারফরম্যান্সের মাঝে এই এক দশকে আর কোনো অধিনায়ক ইংল্যান্ডে পাননি ৫ উইকেট। হোল্ডার-সাকিবদের কীর্তি কতটা বিরল, এটা ফুটে উঠতে পারে আরেকটি তথ্যে। ১৮৮২ সাল থেকে টেস্ট ম্যাচ হচ্ছে ইংল্যান্ডে। মাত্র সপ্তম সফরকারী অধিনায়ক হিসেবে এখানে এই স্বাদ পেলেন হোল্ডার। সঙ্গে ইংলিশ অধিনায়কদের বিবেচনায় নিলেও সংখ্যাটি মাত্র ১২।
হোল্ডারের আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের একজন অধিনায়কই এটি করতে পেরেছিলেন। সর্বকালের সেরা অলরাউন্ডার বলে বিবেচিত স্যার গ্যারি সোবার্স নেতৃত্বের পথচলায় দুবার ইংল্যান্ডে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট, ১৯৬৬ ও ১৯৬৯ সালে। দুবারই হেডিংলিতে। সোবার্স একবার ৪২ রানে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট, আরেকবার ৪১ রানে ৫। ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক হিসেবে ইংল্যান্ডে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড এখন তাই হোল্ডারের।
সব দেশ মিলিয়ে অধিনায়ক হিসেবে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডের হাতছানিও এক পর্যায়ে ছিল হোল্ডারের সামনে। সেটি শেষ পর্যন্ত পারেননি। ১৯৮৭ সালে হেডিংলিতে ৪০ রানে নিয়েছিলেন ৭ উইকেট নেয়ার রেকর্ডটি এখনও আছে সেই সময়ের পাকিস্তান অধিনায়ক ইমরান খানের দখলে।
ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ে ইংল্যান্ডকে ধসিয়ে দেওয়া হোল্ডার এবার চোখ রেখেছেন দীর্ঘদিন ধরে লালন করা ইচ্ছা পূরণের দিকে। এবার ব্যাট হাতে সেঞ্চুরি করতে চান তিনি। আইসিসি টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ অলরাউন্ডারের আগের সেরা বোলিং পারফরম্যান্স ছিল বাংলাদেশের বিপক্ষে। দুই বছর আগে জ্যামাইকার কিংস্টনে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৫৯ রানে ৬ উইকেট দখল করেছিলেন তিনি। এই নিয়ে সবশেষ দশ টেস্টে ষষ্ঠবারের মতো ইনিংসে পাঁচ বা ততোধিক উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন এই দীর্ঘদেহী পেসার। দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে গণমাধ্যমের কাছে হোল্ডার বলেছেন, ‘আমি এখন পর্যন্ত ভালো করেছি। তবে এই টেস্টে আমার কাজ এখনও বাকি আছে। ব্যাট হাতেও বড় অবদান রাখতে হবে আমাকে।’ চাওয়ার কেবল অর্ধেক পূরণ হয়েছে জানিয়ে ২৮ বছর তারকা যোগ করেছেন, ‘সবসময়ই আমার মধ্যে যেসব তাড়না কাজ করেছে, সেগুলোর মধ্যে একটি হলো ইংল্যান্ডে সেঞ্চুরি করা ও ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকার করা। আমি একটি বাক্সে টিক দিয়েছি। এখন সময় এসেছে কাজে লেগে যাওয়ার ও সেঞ্চুরি করার।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সাকিব

৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
২৩ আগস্ট, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন