Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

‘ড্রিমার’ অভিবাসীদের নাগরিকত্ব দেবেন ট্রাম্পও!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০২০, ১২:০৫ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, শিশু বয়সে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করা অভিবাসীদের নাগরিকত্ব দিয়ে দ্রুতই একটি নির্বাহী আদেশ দেবেন। তরুণ অভিবাসীদের নাগরিকত্ব দেয়ার প্রকল্পটি ‘ড্রিমার’ বা ‘ডাকা’ নামে পরিচিত, সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার নেয়া এ উদ্যোগের এত দিন বিরোধিতা করে আসছিলেন ট্রাম্প।
ডিফার্ড অ্যাকশন ফর চাইল্ডহুড অ্যারাইব্যালস তথা ডাকা অভিবাসীদের নাগরিকত্ব দেয়া নিয়ে ট্রাম্প আচমকা ঘোষণা দিলেও দ্রুতই এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দিয়েছে হোয়াইট হাউস।
কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মার্কিন প্রেসিডেন্টের বাসভবনের এক মুখপাত্র জানান, এমন সিদ্ধান্ত এখনই আসছে না। অভিবাসন সংস্কারের বিষয়টি নিয়ে কংগ্রেসে আলোচনা তোলার সম্ভাবনা আছে।
ডাকা তথা ড্রিমার অভিবাসীদের নাগরিকত্বের বিষয়টি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম টেলিমুন্দো নোটিসিয়াসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘আমি একটি বড় ধরনের নির্বাহী আদেশ দেব। প্রেসিডেন্ট হিসেবে এটা করার আমার ক্ষমতা আছে। ডাকাদের এ দেশের নাগরিকত্ব বানাব’।

শিশু বয়সে যারা কোনো বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই বাস করতে, কাজ করতে বা পড়াশোনা করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিল তাদের যুক্তরাষ্ট্রে ডাকা বা ড্রিমার অভিবাসী হিসেবে পরিচিত। এদের অধিকাংশই ল্যাটিন আমেরিকার দেশগুলো থেকে আসা। ২০১২ সালে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওমাবা তাদের নাগরিকত্ব দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

ওবামা সরকারের নেয়া এ প্রকল্প বাতিল করে দেয়ার চেষ্টা করেন ট্রাম্প। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের বাধার সামনে তা সম্ভব হয়নি। গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আদালত এক রুলিংয়ে জানায়, ডাকা বাতিলের সরকারের কোনো জোরালো আইনি যুক্তি নেই এবং এটা বহাল রাখার নির্দেশনা দেয় আদালত।
আদালত থেকে ধাক্কা খাওয়ার পর বিষয়টিতে সুর বদলালেন ট্রাম্প। সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প জানালেন, নতুন অভিবাসন নির্দেশনায় ড্রিমারদেরও অন্তর্ভুক্ত করবেন তিনি- ‘আমরা নাগরিকত্ব দেয়ার একটা রাস্তা তৈরি করব’।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ট্রাম্প


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ