Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

বিদেশি অর্থ পাওয়া এনজিও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না

সাংবাদিকদের চেক বিতরণকালে তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০২০, ১২:০২ এএম

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, দেশে বহু এনজিও আছে যারা বিদেশি অর্থ পায়, এখন তাদের পাওয়া যাচ্ছে না। করোনা সংকটে কয়টি এনজিও মানুষের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে তা জানতে চান তথ্যমন্ত্রী।

গতকাল রাজধানীর কাকরাইলে বাংলাদেশ প্রেস ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রæতি অনুযায়ী সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে করোনা পরিস্থিতিতে সাংবাদিকদের মাঝে সহায়তা চেক বিতরণের চলমান কার্যক্রম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, করোনা মহামারির এসময় সমালোচনার বাক্স নিয়ে বসে থাকা বিএনপি ও এমন অনেকেই জনগণের পাশে নেই। বিবেকহীন অন্ধ সমালোচনা পরিহার করে তাদের সরকারের সাথে জনগণের জন্য কাজ করার আহবান জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে প্রতিদিন গণমাধ্যমে উঁকি দিয়ে সমালোচনা করে বিএনপি নিজেদের জনগণের কাছে হাস্যকর করে তুলছে।

দেশে বহু এনজিও আছে যারা বিদেশি অর্থ পায়, এখন তাদের পাওয়া যাচ্ছে না, কয়টি এনজিও মানুষের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে প্রশ্ন রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক। ড. হাছান বলেন, জীবনকে হাতের মুঠোয় নিয়ে সাংবাদিকরা করোনাকালে কাজ করছেন, অনেকে আক্রান্ত হয়েছেন, কয়েকজন মৃত্যুবরণ করেছেন এবং সাংবাদিকরা হাত গুটিয়ে বসে থাকলে মালিকেরা চাইলেও গণমাধ্যম চালু থাকতো না। মানবিক বিবেচনায় সরকার যেমন সাংবাদিকদের সহায়তা করছে, এসময় গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোর মালিকদের অনেকের সাময়িক কষ্ট হলেও গণমাধ্যমকর্মীদের বেতন-ভাতা নিয়মিত পরিশোধ ও চাকুরিচ্যুতি না করার জন্য পুণরায় অনুরোধ করেন ড. হাছান মাহমুদ। গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোর সহায়তায় সরকারি পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী জানান, সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপনের বকেয়া বিল পরিশোধের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সকল মন্ত্রণালয়ে পত্র ও তাগিদ দেয়া হয়েছে যাতে করে সংবাদকর্মীদের বেতন দিতে সুবিধা হয়।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন-ডিইউজে সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাফর ওয়াজেদ ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজে সভাপতি মোল্লা জালাল। অনুষ্ঠানে ২০০ সাংবাদিককে চেক প্রদান করা হয়।



 

Show all comments
  • Mohammed Shah Alam Khan ১২ জুলাই, ২০২০, ৯:০৯ পিএম says : 0
    তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ সঠিক বলেছেন বাংলাদেশে আজকাল এনজিও দেরকে করোনার উপর কাজ করতে তেমন একটা দেখা যায়না। নিন্দুকেরা বলছেন, এখানে একটা বিষয় মন্ত্রীর নজর দেয়া উচিৎ ছিল সেটা হচ্ছে বিদেশি অর্থ পায় যেসব এনজিও তারা কি কি কাজ করার জন্যে বিদেশ থেকে অর্থ পেয়ে থাকে সেটা অবশ্যই সরকারের এনজিও ব্যুরো জানে। কাজেই মন্ত্রী বাহাদুর যদি তাদের কাছে প্রথমে জেনে নিতেন বিদেশ থেকে করোনার উপর কাজ করার জন্যে দেশীয় এনজিওরা বিদেশ থেকে টাকা পাচ্ছে কিনা পেয়ে থাকলে তারা কারা। এটা জানতে পারলে তাদেরকে ধরাটা ছিল খুবই সহজ পথ। আবার যদি এই কথাগুলো মন্ত্রীর পুলিশদের প্রতি ঈশারা হয়ে থাকে তাহলে কোন প্রশ্ন নেই। আল্লাহ্ আমাকে সহ সবাইকে জেনে, বুঝে সেইভাবে কথা বলার ক্ষমতা প্রদান করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তথ্যমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ