Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

বিটিভির সাংবাদিক নার্গিস জুঁই অবরুদ্ধ, পেয়েছেন হত্যার হুমকি!

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ জুলাই, ২০২০, ৬:৪৫ পিএম

বাংলাদেশ টেলিভিশনের রিপোর্টার নার্গিস জুঁইকে বাসায় তালাবদ্ধ করে অবরুদ্ধ করে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ এসে তালা খুলে তাকে মুক্ত করেছে। বর্তমানে তিনি অবরুদ্ধ অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

জানা যায়, ঢাকা মহানগরের সূত্রাপুর থানার শিংটোলার ৩/১৩/বি, বাড়ীর (৭ তলা) ২য় ও ৩য় তলার দুটি ফ্লাট বাংলাদেশ টেলিভিশনের রিপোর্টার নার্গিস জুঁই এর বাবার টাকায় ক্রয় করা হয়েছিল। এই ফ্লাট নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তার ভাসুর সৈয়দ দেলোয়ার হোসেন ও সৈয়দ মনজুর হোসেন গংদের সাথে নার্গিস জুঁই এর স্বামী সৈয়দ শাহনেওয়াজ এর বিরোধ চলে আসছিল। তারই জের ধরে গত ৫ জুলাই দুপুরে বাড়ীর ৭ম তলার ৩য় তলার ফ্লাটে তালা ঝুলিয়ে, সাদা গান পাউডার ছিটিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। পরবর্তীতে ফ্লাটের বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

খবর পেয়ে সূত্রাপুর থানার এসআই সুব্রত কুমার সিং সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে তালা খোলে সাংবাদিক পরিবারকে মুক্ত করে। খবর পেয়ে সূত্রাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ও মহানগর দক্ষিণ সিটি কপোরেশনের ৪৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: আরিফ হোসেন ছোটন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় ফ্লাটের ভূয়া দাবীদার সৈয়দ দেলোয়ার হোসেন এর কাছে ফ্লাটের মালিকানার কাগজ দেখতে চাইলে তিনি তা দেখাতে ব্যর্থ হন। এ সময় সাংবাদিক নার্গিস জুঁই ফ্লাটের বৈধ কাগজপত্র দেখালে কাউন্সিলর তাৎক্ষণিক কাগজমূলে সাংবাদিক নার্গিস জুঁইকে ফ্লাটে থাকার নির্দেশ দেন এবং প্রতিপক্ষ ফ্লাটের ভূয়া দাবীদার সৈয়দ দেলোয়ার হোসেন গংদের কোন প্রকার বিশৃংখলা না করতে নির্দেশ দেন।

বর্তমানে সাংবাদিক নার্গিস জুঁইকে বিভিন্নভাবে হুমকি ধমকি দিয়ে ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। চলমান ঘটনায় সূত্রাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে ফোন রিসিভ না করায় তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
এ ঘটনায় সাংবাদিক নার্গিস জুঁই জানান, ৭ তলা ভবনের ২য় ও ৩য় তলায় ২টি ফ্ল্যাট আমার বাবার টাকায় ক্রয় করা। ফ্ল্যাট ক্রয়ের পর থেকে এই ফ্ল্যাটগুলির দিকে নজর পরে আমার ভাসুরদের। দীর্ঘদিন যাবত জোর করে আমার ভাশুর সৈয়দ দেলোয়ার হোসেন ও সৈয়দ মনজুর হোসেন গংরা দখল করে রাখে। আমার বৈধ কাগজপত্র, রেজিষ্ট্রিকৃত দলিল, নামজারির কাগজ, খাজনার কাজপত্র সহ যাবতীয় বৈধ কাগজপত্র থাকার পরও তারা আমার‌ ফ্ল্যাট ২টি দখল করে রাখে।তিনি বলেন, আমি কিছুদিন পূর্বে আমার ফ্ল্যাটের দখল নিই।এর পর থেকে তারা বিভিন্নভাবে আমাকে হয়রানি করছে। সবশেষ গত ৫ জুলাই আমার ফ্ল্যাটে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে গান পাউডার দিয়ে আগুন লাগানোর চেষ্টা করে বিদ্যুতের সংযোগ কেটে দেয়। বর্তমানে আমার পরিবারকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। আমি ও আমার পরিবার বর্তমানে চরম নিরাপত্তাহীনতায় জীবন যাপন করছি। আমি প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ