Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

কেন্দ্রের নির্দেশে আগামী ৩ দিনের মধ্যে সিলেট ছাত্রদলের বিভিন্ন স্তরের কমিটি ঘোষনা হচ্ছে !

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৫ জুলাই, ২০২০, ৪:৫৮ পিএম

সিলেট ছাত্রদল এখন চাঙ্গা মেজাজে। আগামী ৩ দিনের মধ্যে ঘোষনা হচ্ছে ৩৪টি ইউনিট, মহানগর শাখার ওয়ার্ড ও কলেজ কমিটি । কেন্দ্রিয় ছাত্রদল এমন নির্দেশ দেয়ায়, উৎফুল্ল দলের নেতাকর্মীরা। কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশনায় কমিটি গঠন করতে তুমুল ব্যস্ত সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের শীর্ষ স্থানীয়রা। সেকারনে সিলেট ছাত্রদলের নেতারা যাচাই-বাচাইয়ে মাধ্যমে কমিটির চূড়ান্ত তালিকা প্রস্তুতির মহাব্যস্ত। তবে কমিটিতে নিজদের জায়গা করে নিতে বহুমুখী লবিং চালিয়া যাচ্ছেন পদ প্রত্যাশীরা।

ছাত্রদল সূত্র জানা যায়, সিলেট জেলা ও মহানগর শাখার আংশিক কমিটি ঘোষণা করে ২০১৮ সালের ১৩ জুন কেন্দ্রীয় সংসদ। কমিটি গঠনের দেড় বছর পর সিলেট ছাত্রদলকে শক্তিশালী ও কমিটি গঠন করতে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের ৪ নেতাকে দায়িত্ব দেয়া হয়। চলতি বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতারা সিলেট সফর করে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের নিয়ে একটি সভার আয়োজন করেন। কমিটির রূপরেখা কিভাবে হবে তার দিক নির্দেশনা ও সিলেট ছাত্রদলকে চাঙ্গা করতে মূলত ছিল এই উদ্যোগ্য। কিন্তু গতশিীল কার্যক্রমে বাধা হয়ে দাঁড়ায় করোনার প্রাদুর্ভাব। বর্তমানে কমিটি গঠনের প্রক্রিয়াকে আর বিলম্বিত করতে চায় না ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ। সিলেট জেলা ও মহানগর শাখাকে নির্দেশ প্রদান করেন দ্রুত সময়ের মধ্যে গঠন করতে ইউনিটি কমিটি। এরপরেই জেলা ও মহানগর শাখার পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনেরও নির্দেশ কার্যকর করা হবে। কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ও সিলেট বিভাগের দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতা ওমর ফারুক কাওছার জানান, কেবল ২০০৫ সালে এসএসসি উর্ত্তীনরাই জায়গ্ াপাবেন উপজেলা ও পৌর শাখার কমিটিতে। নেতাকর্মীদের সার্টিফিকেট ও রেজিস্ট্রেশন কার্ডের ফটোকপিও জমা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে কমিটি জমাকালে। সেই কাগজপত্র দ্রুত অনলাইনে চেক করে সত্যতা যাচাইয়ের পর কমিটি অনুমোদন প্রদান করা হবে। স্থানীয় ছাত্রসূত্র জানায়, সিলেট জেলার আওতাধীন উপজেলা, পৌর ও ডিগ্রী কলেজ শাখার ৩৪টি ইউনিট কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত হচ্ছে। সিলেটের ১৩ উপজেলা, ৫ পৌরসভা ও ১৬টি কলেজ ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি গঠনের লক্ষ্যে কাজ করছেন জেলা ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ। দলের একটি সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে পদপ্রত্যাশি অনেক নেতাকর্মী সার্টিফিকেট ইস্যুতে বাদ পড়ছেন।
দলীয় দায়ত্বশীল সূত্র জানায়, আহবায়ক ও সদস্য সচিব সহ ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি হবে উপজেলা ও পৌর ছাত্রদলের। আরো ৮ জনকে যুগ্ম আহবায়ক করে কমিটিতে বাকিদের সদস্য রাখা হবে। কোনোভাবেই স্থান হচ্ছে না বিবাহিতদের এবারের কমিটিতে। কেউ যদি বিয়ে করে গোপন রাখেন তার বিরুদ্ধে নেয়া হবে সাংগঠনিক ব্যাবস্থা। এদিকে, কমিটিতে স্থান পেতে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা মরিয়া হয়ে উঠেছেন। এছাড়া স্থানীয় বিএনপি নেতারাও নিজেদের বলয়ভারী করতে কমিটিতে আধিপত্য বজায়ে তৎপরতা চালাচ্ছেন। সেজন্য নিজ নিজ অবস্থান থেকে অবলম্বন করছেন নানা কৌশল। অপরদিকে, সিলেট মহানগর ছাত্রদলের আওতাধীন কয়েকটি কমিটি গঠনের চূড়ান্ত প্রক্রিয়াও চলছে। করোনাভা পরিস্থিতির পূর্বে মদন মোহন কলেজ, সিলেট ল’কলেজ ও পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এবং মহানগরীর ১৪টি ওয়ার্ডের আংশিক কমিটির অনুমোদন হয়। বাকি ১৩টি ওয়ার্ড, এমসি কলেজ ও সিলেট সরকারি কলেজের কমিটি প্রস্তুত হচ্ছে।
মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বি আফসান বলেন, আগামি দুই দিনের ভেতরে কমিটির তালিকা জমা দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা। তৃণমুল নেতাকর্মীদের অভিমত, ছাত্রদলের পূরণো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে বিগত দিনে রাজপথে যারা আন্দোলন-সংগ্রাম করেছেন তাদের মূল্যায়নের বিকল্প নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ