Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৭ মাঘ ১৪২৭, ০৭ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে বায়তুল মোকাররমে জাতীয় ওলামা পরিষদের গণজমায়েত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ জুলাই, ২০২০, ৮:২৩ পিএম

আসন্ন ঈদুল আযহায় কোরবানির পশুর চমড়ার ন্যায্যমূল্য নির্ধারণের দাবিতে আজ শুক্রবার বাদ জুমা বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইটে জাতীয় ওলামা পরিষদের উদ্যোগে স্বাস্থ্যবিধি তোয়াক্কা না করেই গণজমায়েত অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি মধুপুর পীর সাহেব মাওলানা আব্দুল হামিদ অসুস্থ্য থাকায় গণজমায়েতে উপস্থিত হতে পারেননি। সংগঠনের উপদেষ্টা ও জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গণজমায়েতে কোনো প্রকার স্বাস্থ্যবিধি মানা হয়নি। গণজমায়েতে আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী কোরবানির পশুর চামড়ার ন্যায্যমূল্য নির্ধারণের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারাদেশে সব ধরণের ধর্মীয়, রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সমাবেশ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। সরকারের এই নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করে গতকাল শুক্রবার বাদ জুমা জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে গণজমায়েত করায় উপস্থিত লোকজন হতবাক হন। এমনকি সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ না করে মাস্কহীন অবস্থায় জড়ো হন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। এদের মধ্যে কওমি মাদাসার শিশু শিক্ষার্থীদেরও দেখা গেছে। উপস্থিত পুলিশরাও এ ব্যাপারে কোনো বাধা দেয়নি।
এ অবস্থায় শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে জড়ো হতে থাকেন ওলামা পরিষদের নেতারা। মসজিদের উত্তর গেটে ব্যানার নিয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখেই দাঁড়ান সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। মাইকে বক্তব্য রাখেন সবাই। এর আগে গত বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনেও এই দাবি জানিয়েছিল সংগঠনটি। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সাইফুল্লাহ দাবি আদায় না হলে দেশব্যাপী আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ