Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

চীন, রাশিয়া, ইরান, পাকিস্তান ও তুরস্কের জোট বাস্তবে রূপ নিচ্ছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০২০, ১:৪২ পিএম

সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের পর থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অবিসংবাদিত বৈশ্বিক শক্তি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে অর্থনৈতিক ও সামরিকভাবে উভয় ক্ষেত্রেই চীনের উত্থান দেশটিকে আমেরিকার শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী করে তুলেছে। চীন আমেরিকার উপেক্ষা বা হুমকির শিকার দেশগুলোর সাথে তার সম্পর্ক জোরদার করে চলেছে। চীন, রাশিয়া, ইরান, পাকিস্তান এবং তুরস্কের একটি নতুন ‘সোনার আংটি’ ক্রমশ বাস্তবতায় রূপ নিচ্ছে।–ইনসাইডার পেপার

 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে দূরে ঠেলে, চীনকে কাছাকাছি টানছে: এই সমস্ত দেশ চীনের আরও কাছাকাছি আসতে চলেছে।এ কারণে কাউকে অবাক করে দেওয়া উচিত নয়। আমেরিকা রাশিয়া ও ইরানের উপর কঠোর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে, তাদের অর্থনীতি ও মুদ্রাকে ক্ষতিগ্রস্থ করেছে। জাতিসংঘের চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের আশ্রয় না দেওয়ার জন্য পাকিস্তানকেও আহ্বান জানিয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তুরস্ক মিত্র, কারণ তারা দুজনই ন্যাটো সদস্য। তবে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে তুরস্ক আমেরিকা থেকে দূরে সরে গেছে। এমনকি রাশিয়ার সাথে এস -৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কেনার জন্য একটি চুক্তিও সই করেছে।

 

ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক এবং অন্যান্য সুবিধার পরিবর্তে এই দেশগুলোতে অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য চীনকে গভীর প্রয়োজন রয়েছে। চীন আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্মে রাশিয়া, ইরান, পাকিস্তান ও তুরস্ককে রাজনৈতিক সমর্থনও দিয়ে আসছে। এই মাসের গোড়ার দিকে যখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জাতিসংঘের সুরক্ষা কাউন্সিলে ইরানের উপর অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ বাড়ানোর জন্য পদক্ষেপ নিয়েছিল, তখন চীন এই পদক্ষেপের বিরোধিতা করেছিল।

 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কোভিড-১৯ মহামারী এবং রেকর্ড-উচ্চ বেকারত্বের সাথে লড়াই করছে, তথাকথিত ‘সোনার আংটি’ দেশ ওয়াশিংটনে পটশট নিচ্ছে। তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রজব তাইয়েপ এরদোগান এমনকি বলেছেন যে, মার্কিন আধিপত্য একটি "অন্যায্য" বিশ্ব ব্যবস্থার অংশ।

 

চীন ইরান, পাকিস্তান, রাশিয়া এবং তুরস্ককে বিআরআই-তে একটি দল করে তোলে : চীন তার উচ্চাভিলাষী বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ (বিআরআই) এর মাধ্যমে এই প্রতিটি দেশের সাথে অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করছে। এটি পাকিস্তানে আনুমানিক ৪০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে। এটি রাশিয়ার সাথে ২৭০ বিলিয়ন ডলারের তেল চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে।

 

চীন ২৫ বছরের সময়কালে ইরানে প্রায় ৪০০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের পরিকল্পনা করছে বলেও জানা গেছে। বিনিয়োগ হবে পেট্রোলিয়াম, অবকাঠামো, বিমানবন্দর, রেলপথ, ব্যাংকিং এবং টেলিকমে। এই সপ্তাহের শুরুতে তেহরান ঘোষণা করেছিল যে, কৌশলগত চাবাহার বন্দরের জন্য বেইজিংয়ের সাথে অংশীদার হয়েছে। এটি ইরানকে বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হিসাবে পরিণত করবে, চীনকে তুরস্কের মাধ্যমে ইউরোপের সাথে সংযুক্ত করবে। বিনিময়ে ইরান ভারতে ছাড়ের দামে চীনকে তেল ও গ্যাস সরবরাহ করবে।

 

পাকিস্তানে ইরানের রাষ্ট্রদূত সৈয়দ মোহাম্মদ আলী হোসেইনি একটি সোনার আংটির সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন, যাতে চীন, রাশিয়া, ইরান, পাকিস্তান এবং তুরস্ক অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এবং "সোনার আংটি" রূপ নিচ্ছে বলে মনে হচ্ছে।



 

Show all comments
  • If it's true. I think it's better future for everyone. ১৮ জুলাই, ২০২০, ২:৫৬ পিএম says : 0
    This is is great news
    Total Reply(0) Reply
  • abul kalam ১৮ জুলাই, ২০২০, ২:৩১ পিএম says : 0
    ভারতের বারোটা বেজে যাবে- ভারতের একমাত্র বন্ধু খবিস ইসরাইল, আমেরিকা পতনের মুখে, মধ্যপ্রাচ্যের পেট্রোডলারে আমেরিকা এখনো নিশ্বাস নিচ্ছে, ভারত মুসলমান বিদ্বেষ, হত্যার কঠিন সাজা পাবে~
    Total Reply(0) Reply
  • Fayasl ১৮ জুলাই, ২০২০, ৩:৫৫ পিএম says : 0
    এশিয়া এক হও, আমেরিকা ঠেকাও।
    Total Reply(0) Reply
  • শহিদ সরকার ১৮ জুলাই, ২০২০, ৮:৪৫ পিএম says : 8
    আমিএক জন ভারতীয় নাগরিক।ভারতবর্ষ ের যে শক্তিশালী দেশ বিরোধীতা করবে।সে আমার মহা শত্রু।নিজের দেশ রক্ষা করাই।আমার অঙ্গীকার।তাহাতে জীবনের শেষ নিষ্যাস থাকা পযর্ন্ত।জয় হিন্দ।
    Total Reply(1) Reply
    • Shahin ২০ জুলাই, ২০২০, ৩:০৭ পিএম says : 0
      You are Indian Muslim but actually you have no country, you are not Indian not Bangladeshi and not Pakistani.
  • শহিদ সরকার ১৮ জুলাই, ২০২০, ৮:৪৫ পিএম says : 6
    আমিএক জন ভারতীয় নাগরিক।ভারতবর্ষ ের যে শক্তিশালী দেশ বিরোধীতা করবে।সে আমার মহা শত্রু।নিজের দেশ রক্ষা করাই।আমার অঙ্গীকার।তাহাতে জীবনের শেষ নিষ্যাস থাকা পযর্ন্ত।জয় হিন্দ।
    Total Reply(0) Reply
  • Soyad Moktadir khandakar ১৮ জুলাই, ২০২০, ১১:১৩ পিএম says : 0
    আমেরিকার বিকল্প একটা পরাশক্তির প্রয়োজন
    Total Reply(0) Reply
  • Soyad Moktadir khandakar ১৮ জুলাই, ২০২০, ১১:১৪ পিএম says : 0
    আমেরিকার বিকল্প একটা পরাশক্তির প্রয়োজন
    Total Reply(0) Reply
  • ananda talukder ১৯ জুলাই, ২০২০, ৩:০০ পিএম says : 0
    bangladeshi lok sabsamai indiar birude take
    Total Reply(0) Reply
  • Babu Hazari ১৯ জুলাই, ২০২০, ৩:০৯ এএম says : 0
    Veary good welcome to add Bangladesh alhamdolila.. Thanks
    Total Reply(0) Reply
  • Samiya ১৯ জুলাই, ২০২০, ৯:২২ এএম says : 0
    লেখার বিষয়বস্তু সুন্দর হলেও অনুবাদ প্রান্তবন্ত নয়।
    Total Reply(0) Reply
  • Mahamudul Ahsan ১৯ জুলাই, ২০২০, ৫:০৫ এএম says : 0
    নামের সোনার আংটি যেন কাজের সোনার আংটি হয়।এই আশা করি।Today or tomorrow sinners will suffer.ন্যায় প্রতিষটা করবে নতুন জোট এই প্রত্যাশা রাখি।Hope A unique world.নিরন্ন অন্ন পাবে।সুখে শান্তিতে বিশ্ব ভরে যাবে।ক্ষমতার দাপট থাকবে না।চিরশান্তির ধরম ইসলামের পতাকা উড়বে।
    Total Reply(0) Reply
  • prasanta bera ১৯ জুলাই, ২০২০, ৮:০৩ এএম says : 3
    আমি একজন ভারতীয়,এখন রাশিয়া এবং আমেরিকা এরা দুজনেই ভারতের অন্যতম বন্ধু কিন্তু এরা একে অপরের সত্রু হওযায় ভারতের কাছে এটা চ্যালেঞ্জের যে ভারত কূটনৈতিক ভাবে কিভাবে এর সমাধান করবে তবে রাশিয়া চিন এর মতো আগ্রাসী মনোভাব দেশের সঙ্গে সঙ্গ দিয়ে ভুল করছে,
    Total Reply(0) Reply
  • S roy ১৯ জুলাই, ২০২০, ৮:৪৭ এএম says : 0
    They are good partner but that is not true
    Total Reply(0) Reply
  • Nurun Nabi ২০ জুলাই, ২০২০, ১১:২৩ এএম says : 0
    চীন নাই বা-হলো!কিন্তু পাকিস্তান,বাংলাদেশ,নেপাল,ভুটান,লংক, এইসব দেশকে বন্ধু বানাতে না পারাটা ভারতের জন্য এক চরম ব্যর্থতা?
    Total Reply(0) Reply
  • আকতার হোসাইন রাজু ২১ জুলাই, ২০২০, ১:৩২ এএম says : 0
    এই মুহুর্তে বিশ্বের ভারসাম্য ফিরিয়ে আনতে হলে আমেরিকার বিপক্ষে বিকল্প একটা শক্তির প্রয়োজন, তা-না হলে আমেরিকা ও তার দোষর ইহুদিবাদী ইজরাইল তাদের আধিপাত্য বিস্তারের জন্য বিশ্বের জন্য বিশ-ফোড়া হয়ে উঠবে।
    Total Reply(0) Reply
  • আকতার হোসাইন রাজু ২১ জুলাই, ২০২০, ১:৩৩ এএম says : 0
    এই মুহুর্তে বিশ্বের ভারসাম্য ফিরিয়ে আনতে হলে আমেরিকার বিপক্ষে বিকল্প একটা শক্তির প্রয়োজন, তা-না হলে আমেরিকা ও তার দোষর ইহুদিবাদী ইজরাইল তাদের আধিপাত্য বিস্তারের জন্য বিশ্বের জন্য বিশ-ফোড়া হয়ে উঠবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Md.Abdul Kader ২১ জুলাই, ২০২০, ৭:১৪ এএম says : 0
    প্রত্যাকটা দেশ স্বাধীন ভাবে চলতে চাই। কিন্তু কিছু কিছু দেশ আছে তাদের সাতথর জন্য বিভিন্ন সমস্যা করে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জোট


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ