Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

প্রথম চালান আসছে কাল

চট্টগ্রাম বন্দরে ভারতকে ট্রানজিট

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২০ জুলাই, ২০২০, ১২:০২ এএম

চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করে ভারতের পণ্য পরিবহন আরো একদিন পিছিয়ে গেছে। ভারতের পণ্যবাহী প্রথম চারটি কন্টেইনার নিয়ে বাংলাদেশি জাহাজ ‘এমভি সেঁজুতি’ আজ সোমবার চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছার কথা থাকলেও জাহাজটি আগামীকাল মঙ্গলবার আসছে বলে জানা গেছে। 

‘এমভি সেঁজুতি’ জাহাজের এজেন্ট ম্যাঙ্গো লাইন লিমিটেডের কর্মকর্তারা জানান, জাহাজটি গতকাল রোববার চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ভারতের হলদিয়া বন্দর ছেড়েছে। এটি ২১ জুলাই সকাল ৯টা নাগাদ চট্টগ্রাম বন্দরের বর্হিনোঙ্গরে ভিড়ার কথা রয়েছে। এর আগে ২০ জুলাই রাতে জাহাজটি চট্টগ্রাম বন্দরে আসার কথা জানিয়েছিলেন কর্মকর্তারা।
এই চালানটির মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রধান সমুদ্র বন্দর এবং মহাসড়ক ব্যবহার করে ভারতের পণ্য পরিবহনের ট্রায়াল রান শুরু হচ্ছে। প্রথম চালানে চার কন্টেইনার পণ্য যাবে ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরা ও আসামে। কলকাতার শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় বন্দর থেকে স্টিল ও ডালবাহী এসব কন্টেইনার নিয়ে জাহাজটি হলদিয়া বন্দর হয়ে চট্টগ্রাম বন্দরে আসছে। বন্দরে আসার পর কন্টেইনার খালাস করে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের হেফাজতে আখাউড়া-আগরতলা স্থলবন্দর সীমান্তে পৌঁছে দেওয়া হবে।
এ চালানে পণ্য পরিবহন বাবদ ভাড়া ও প্রস্তাবিত বিভিন্ন মাশুল পাবে চট্টগ্রাম বন্দর, কাস্টমস এবং সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ। নির্ধারিত সাতটি মাশুল বাবদ বাংলাদেশ প্রতি কন্টেইনারে ৪৮-৫৫ ডলার পাবে। এই মাশুলের বাইরে চট্টগ্রাম বন্দরের চার্জ যুক্ত হবে। বিগত ২০১৮ সালের অক্টোবরে দিল্লিতে বাংলাদেশের চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহার করে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যেগুলোতে পণ্য সরবরাহ করতে দুই দেশের মধ্যে চুক্তি হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চট্টগ্রাম-বন্দর

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ