Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

২৪ বছরের কারাদন্ড গীতা অরোরার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ জুলাই, ২০২০, ১২:০৩ এএম

১২ বছরের কিশোরীকে জোরপ‚র্বক যৌনকর্মী বানানোর অপরাধে গীতা অরোরা ওরফে সোনু পাঞ্জাবনকে (৩৯) ২৪ বছরের কারাদন্ড দিয়েছে ভারতের দিল্লির দ্বারকা আদালত। গীতা অরোরার বিরুদ্ধে কেবল যৌনকর্মী বানানোই শেষ নয়, কমবয়সী মেয়েদের অপহরণ করে মানব পাচারের অভিযোগ রয়েছে। গতকাল বুধবার কারাদন্ড শোনানোর পাশাপাশি সোনুকে ৬৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সোনুর বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ৩২৮, ৩৪২, ৩৬৬এ, ৩৭২, ৩৭৩, ১২০বি ধারায় মামলা করা হয়েছিল। সোনু পাঞ্জাবন ছাড়াও তারর ঘনিষ্ঠ সন্দীপ বেদওয়ালকে সাজা দিয়েছেন দ্বারকা আদালত। সন্দীপকে ২০ বছরের কারাদন্ড ও ৬৪ হাজার টাকা জরিমানার সাজা দিয়েছেন বিচারক। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ৩৬৩, ৩৬৬, ৩৬৬এ, ৩৭২, ৩৭৬ ও ১২০বি-র ধারায় মামলা করা হয়েছিল। সোনুকে পকসো আইনের আওতায় গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশ। ২০০৯ সালে ১২ বছরের এক মেয়েকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে নিয়ে আসেস সন্দীপ। এরপর সীমা নামে এক নারীর কাছে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে। ওই নাবালিকা পরে সন্দীপের নামে ধর্ষণের অভিযোগ করে। সীমা নামের ওই নারীর কাছে নাবালিকাকে বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। সেই সীমা প্রথম ওই কিশোরীকে যৌনকর্মী হতে বাধ্য করেন। পরে বিক্রি করে দেন সোনু পাঞ্জাবনের কাছে। সোনু একাধিকবার যৌনকর্মী হতে বাধ্য করেন ওই নাবালিকাকে। এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যৌন

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ