Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

মেঘনায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগ

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৬ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের মেঘনা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগ ওঠেছে। যার কারণে ভাঙনের হুমকিতে রয়েছে প্রস্তাবিত অর্থনৈতিক জোনের জায়গাসহ ১০ গ্রাম। স্থানীয় সন্ত্রাসীদের চাঁদা দিয়ে গ্রামবাসীদের ভয়ভীতি দেখিয়ে এ বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। এজন্য ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না গ্রামবাসীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মেঘনা থানার চালিভাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ ওরফে লতু চেয়ারম্যান দীর্ঘদিন ধরে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের চর লক্ষ্মীপুর ও কান্দাপাড়ার মাঝে মেঘনা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে। স্থানীয় সন্ত্রাসীদের চাঁদা দিয়ে গ্রামবাসীদের ভয়ভীতি দেখিয়ে তাদের মুখ বন্ধ রেখে দিনের পর দিন বালু উত্তোলন করে আসছে সে। কালাপাহাড়িয়া চর লক্ষ্মীপুর এলাকায় প্রস্তাবিত ইকোনোমিক (অর্থনৈতিক) জোন হওয়ার কথা রয়েছে। বালু উত্তোলনের ফলে এ অঞ্চলটি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তাছাড়া এখানে আশ্রয় কেন্দ্রও রয়েছে। যারমধ্যে মানুষ দুর্যোগকালীন সময়ে আশ্রয় নেয়।
এ ব্যাপারে বালু উত্তোলনকারী লতিফ জানান, আমি ইজারা নিয়ে মেঘনা থানা এলাকা থেকে বালু উত্তোলন করছি। আড়াইহাজারের সীমানায় যাই না। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সোহাগ হোসেন জানান, আড়াইহাজারে বালু উত্তোলনের কোনো ইজারা দেয়া হয়নি। বালু উত্তোলনকারীরা আসে মেঘনা থানা থেকে। খবর পেয়ে আমরা অভিযানের প্রস্তুতি নিতে গেলে তারা চলে যায়। তারপরও আমরা ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন