Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

বহুপাক্ষিক সহযোগিতা ও রিসোর্স শেয়ারিংয়ে গুরুত্বারোপ এফবিসিসিআই সভাপতির

কমনওয়েলথ প্ল্যাটফর্মে স্থানীয় নবায়নযোগ্য জ্বালানীতে অর্থায়ন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ জুলাই, ২০২০, ৪:২২ পিএম

কমনওয়েলথ এন্টারপ্রাইজ এবং ইনভেস্টমেন্ট কাউন্সিল সম্প্রতি ‘কমনওয়েলথ ক্লিন এনার্জি কনভারসেশন’ শীর্ষক একটি ওয়েবিনার করেছে। এতে চলমান এই প্রতিযোগিতামূলক বাজারে নবায়নযোগ্য জ্বালানী উত্সগুলোর জন্য সুষম ও সাশ্রয়ী ট্রানজিশন তৈরির বিষয়ে আলোচনা হয়। মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। 

কমনওয়েলথ দেশগুলো জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াই করতে তাদের কার্বনডাইঅক্সাইড (CO2) নির্গমনকে উল্লেখযোগ্যভাবে কমাতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে। এখন, জীবাশ্ম জ্বালানির সীমাবদ্ধ সরবরাহ এবং তাদের ক্ষতিকারক পরিবেশগত প্রভাব প্রমাণের জন্য ক্রমবর্ধমান প্রমাণদিসহ দেশগুলো একটি বৃহৎ পরিসরে বায়ু, হাইড্রো এবং সোলারের মতো নবায়নযোগ্য জ্বালানী উৎসের ব্যবহারের দিকে রূপান্তরিত হচ্ছে।
বিনিয়োগের সুযোগসমূহের চ্যালেঞ্জ এবং জ্ঞান বিনিময় ও গ্রিন ইকোনোমিতে রূপান্তরের ক্ষেত্রে কীভাবে কমনওয়েলথ একটি প্ল্যাটফর্মের ভূমিকা পালন করতে পারে এই সংক্রান্ত আলোচনায় অংশ নিয়েছিলেন এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম। কমনওয়েলথ-এর মাধ্যমে স্থানীয় নবায়নযোগ্য জ্বালানী বাস্তবায়নের অর্থায়ন বিষয়েও আলোচনা হয়।
ওয়েবিনারে এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, জ্বালানি খাত এবং আগামী দিনের বিদ্যমান বিষয়গুলোকে ৬০-এর দশকের প্রথম দিকেই আলোচনায় আনা হয়েছিল। তবে এটি বাস্তবায়েনের জন্য বহুপক্ষীয় উদ্যোগে অর্থায়ন করা হলে আমরা আরও সম্পৃক্ত হতে পারি। নবায়নযোগ্য জ্বালানীর প্রকার এবং ব্যবসায়ের মডেল খুব একটা পরিচিত নয় এবং স্থানীয় সরকার ও ব্যাংকগুলোও পর্যাপ্ত নয়।
তিনি বলেন, তবে কমনওয়েলথের মতো বিশ্বব্যাপী প্ল্যাটফর্ম এবং সংস্থার মাধ্যমে এই বিষয়গুলি মোকাবেলা করা যেতে পারে।
জার্মানি এবং বিএমডব্লিউ'র বৈদ্যুতিক যানবাহনের জন্য অবকাঠামো গড়ার বিষয়টি তুলে ধরে এফবিসিসিআই সভাপতি আরও বলেন, সবুজ ও নবায়নযোগ্য জ্বালানীর ক্ষেত্রে একটি সহজ রূপান্তর প্রক্রিয়ার জন্য দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সরকারি বা বেসরকারি প্ল্যাটফর্মগুলোতে মালামাল ও দক্ষতা বা জ্ঞান প্রেরণ কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।
এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি ছাড়াও, আরইইইপি'র মহাপরিচালক ম্যাগডালেনা কাউনেভা; ড. টনি জুনিপার, সিবিই, বোর্ড সদস্য,কুল আর্থ; এবং যুক্তরাজ্যের জলবায়ু বিনিয়োগ এলএলপি ম্যাককুয়েরি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রিচার্ড আবেল সহ অন্যান্য বড় জ্বালানী বিশেষজ্ঞ ওয়েবিনারে অংশ নিয়েছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ