Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০২ সফর ১৪৪২ হিজরী

রামগঞ্জে গরুর বাজার নিয়ন্ত্রনকে কেন্দ্র করে আ’লীগ-ছাত্রলীগের সংঘর্ষ

লক্ষ্মীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ জুলাই, ২০২০, ৬:২১ পিএম

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ও গরুর বাজার নিয়ন্ত্রন নিতে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল ২৮ জুলাই বেলা ২.৩০ এর সময় উপজেলার ১০নং ভাটরা ইউনিয়নের ভাটরা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কোরবানীর ঈদ উপলক্ষে অস্থায়ী গরুর বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় ৬ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
আহতদের মধ্যে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ওয়াসিম, আ’লীগ সহ সভাপতি হেলাল দেওয়ান, আ’লীগ নেতা জাহাঙ্গীর দেওয়ান রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ী ফিরেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কোরবানী ঈদ উপলক্ষে ইউনিয়নের গরুর বাজারটি ইজাড়া পায় ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ওয়াসিম। কিন্তু ইউনিয়ন আ’লীগ সহ-সভাপতি হেলাল দেওয়ান গরুর বাজারটি ইজাড়া নিতে চেয়ে ছিলো। কিন্তু ইজাড়া না পেয়ে বাজারের অর্ধেক ভাগ চায় হেলাল দেওয়ান। এতে এমন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।
ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ওয়াসিম বলেন, আ’লীগ নেতা হেলাল দেওয়ান বাজারের ইজাড়া না পেয়ে আমার কাছে অর্ধেক ভাগ চায়। ভাগ না দেওয়ায় হেলাল দেওয়ান, জাহাঙ্গীর দেওয়ান, হৃদয় দেওয়ান, আনন্দ ও রিমন দেওয়ান দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে তার হামলা চালায়।
ইউনিয়ন আ’লীগ সহ-সভাপতি হেলাল দেওয়ান বলেন, গরুর বাজার নিয়ে কিছুই হয়নি। বিষয়টি পারিবারিক।
ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন মিঠু বলেন, আমি দু’পক্ষকেই থামানোর চেষ্টা করেছি কেউই আমার কথা শোনেনি।
রামগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, এব্যাপারে কোন অভিযোগ পাই নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংঘর্ষ

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ