Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মালয়েশিয়ায় অভিবাসী কর্মী কমিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে

স্থানীয় নাগরিকদের কর্মপরিধি বাড়ছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ জুলাই, ২০২০, ২:৫২ পিএম

মালয়েশিয়ায় অভিবাসী কর্মীদের কাজের জন্য মাত্র তিনটি সেক্টর খোলা রাখা হচ্ছে। দেশটির স্থানীয় নাগরিকদের কর্মপরিধি বাড়ানো হচ্ছে। করোনা মহামারীতে দেশটির অর্থনীতিতে ধস নামায় অভিবাসী কর্মীর কর্মপরিধি কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে সরকার। এখন থেকে শুধু নির্মাণ কাজ, কৃষিকাজ এবং বৃক্ষায়ণ বা বাগানের কাজে বিদেশি কর্মীদের নিয়োগ করবে তারা। বাকি যেসব কাজ থাকবে, তাতে কাজ করবেন মালয়েশিয়ান নাগরিকরাই। করোনাভাইরাস সংক্রমণ অন্য দেশের মতো মালয়েশিয়ায়ও অর্থনীতির মারাত্মক ক্ষতি করেছে। এ ছাড়া মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডারের (এমসিও) ফলেও অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেই ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। মালয়েশিয়ার অনলাইন মালয় মেইল এ খবর দিয়েছে। বুধবার দেশটির পার্লামেন্ট দেওয়ান রাকায়েতে এ তথ্য দিয়েছেন মানবসম্পদ বিষয়ক উপমন্ত্রী আওয়াঙ্গ সোলাহুদিন।
তিনি পার্লামেন্টে বলেছেন, শুধু নির্মাণ খাত, কৃষি খাত এবং প্লান্টেশন খাতে বিদেশি কর্মীদের নিয়োগ করা যাবে। অন্য যেসব সেক্টর আছে তা স্থানীয় কর্মীদের দিয়ে পূরণ করতে হবে। বিদেশি কর্মী কমিয়ে আনার গাইডলাইন অনুসারে এটা করা হবে।

বর্তমানে এই তিনটি খাত ছাড়াও উৎপাদন শিল্প ও সেবাখাতেও বিভিন্ন কাজ করার অনুমতি রয়েছে বিদেশি কর্মীদের। এসব কাজকে নোংরা, বিপজ্জনক ও থ্রিডি প্রকৃতির কঠিন কাজ মনে করে স্থানীয়রা তা করতে প্রত্যাখ্যান করেন। তা ছাড়া এসব সেক্টরে বেতন কম। এজন্য স্থানীয়রা এসব কাজ করতে রাজি হন না বলে বিদেশি কর্মীরা এতে যুক্ত। স্থানীয় অনেক কর্মী মনে করেন, থ্রিডি প্রকৃতির যেসব কাজ তার সময় ও তাতে যে পরিশ্রম হয় তাতে উপযুুক্ত বেতন দেয়া হয় না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মালয়েশিয়া

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন