Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মানুষের মতপ্রকাশের স্বাধীনতাও কেড়ে নিচ্ছে সরকার: রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ জুলাই, ২০২০, ৫:১১ পিএম

ক্ষমতাসীন সরকার সারা বাংলাদেশের মানুষকে গরু-ছাগলের খোঁয়াড়ে পরিণত করেছে মন্তব্য করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, জনগণের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সরকার কেড়ে নিচ্ছে। বুধবার সকালে মুন্সিগঞ্জের আড়িয়াল খাঁ বিলে ‘জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০২০’ বিভিন্ন প্রজাতির মাছের পোনা অবমুক্ত করার সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব অভিযোগ করেন। জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের উদ্যোগে মাছের পোনা অবমুক্ত করার এই অনুষ্ঠান হয়। মৎস্যজীবী দলের আহবায়ক রফিকুল ইসলাম মাহতাবের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব আবদুর রহিমের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয় সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু বক্তব্য রাখেন। এসময় মৎস্যজীবী দলের সেলিম মিয়া, জাকির হোসেন খান, ওমর ফারুক, কবির উদ্দিন, হিমু স্বপন, আনোয়ার হোসেন, আলমগীর সামী, কে এম সোহেল রানা প্রমুখ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, বিএনপি গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন করছে। কারণ ক্ষমতাসীনরা এটি আজকে কেড়ে নিয়েছে। আপনারা যদি মতপ্রকাশের জন্য ফেসবুকের কোথাও কিছু লেখেন, দিনে-রাতে যেকোনো সময়ে সাদা পোষাকধারীরা আপনাদের ধরে নিয়ে যাবে। শুধু তাই নয়, আজকে ভোটের অধিকার নেই, আজকে কথা বলার অধিকার নেই, আজকে গণতন্ত্রের যে অধিকারগুলো দিয়েছে সব কেড়ে নিয়েছে। সেজন্য গণতান্ত্রিক দল হিসেবে আমরা লড়াই করছি, সেজন্য আমরা আন্দোলন করছি।

বিরোধী মতের ওপর সরকারের দমননীতির কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ তো গরু-ছাগলের খোঁয়াড় না। মানুষ চিন্তা করে স্বাধীনভাবে এবং স্বাধীনভাবে চিন্তা করে মানুষ যেটা লিখে বা পড়ে বলতে চায়। শেখ হাসিনা সারা বাংলাদেশের মানুষকে গরু-ছাগলের খোঁয়াড়ে পরিণত করেছে। কারণ তিনি মনে করেন এই খোঁয়াড়ের মধ্যে মানুষ বন্দি থাকলে আমার বিরুদ্ধে কোনো কথা বলবে না। তারা দিনের ভোট রাত্রে করে, জনপ্রতিনিধি যেটা নির্বাচিত করবে সেটা নির্বাচনের আগেই ঠিক করে রাখে। নির্বাচনের নামে শুধু ঘোষণা দেয় মাত্র। প্রকৃত ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে যেতে পারে না।

বর্ষা মৌসুমে প্রাকৃতিক জলাশয়ে মাছে পোনা অবমুক্ত করার কর্মসূচি বিএনপি করছে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, আমরা আন্দোলনের পাশাপাশি জিয়াউর রহমানের উতপাদন ও উন্নয়নের রাজনীতির কাজও করছি। কয়েকজন ব্যক্তি দুই-একটা ফ্লাইওভার করে আর আওয়ামী লীগের নেতারা পকেটে ভারী করে তারা এখন কানাডায় বাড়ি বানাবেন, সেকেন্ড হোম করবেন মালয়েশিয়ায়-এটা জিয়াউর রহমানের নীতি ছিলো না। জিয়াউর রহমানের নীতি ছিলো দেশের তৃণমূলের কর্মহীন মানুষদেরকে স্বয়ং সম্পূর্ণ করা, আত্মনির্ভরশীল করা। এই কারণে তিনি মাছ চাষ প্রকল্প, এই কারণে তিনি কৃষিতে স্বয়ং সম্পূর্ণতা অর্জন, এই কারণে তিনি দেশকে নানা দিক থেকে অগ্রগতি করেছেন। এই নানা দিক থেকে অগ্রগতির ধারাবাহিকতা আমাদের অঙ্গসংগঠনসমূহ কাজ করছে। আমাদের ওপরে খড়গ, মামলার খড়গ, জুলুমের খড়গ তারপরও জাতীয়তাবাদী মতস্যজীবী দল সাধারণ মানুষের কল্যাণে আজকে বিভিন্ন জলাশয়ে বর্ষার মৌসুমে মাছের পোনা অবমুক্ত করার এই কর্মসূচি নিয়েছে। মৎস্যজীবী দলকে ধন্যবাদ জানান রিজভী।



 

Show all comments
  • jack ali ২৯ জুলাই, ২০২০, ৫:৫২ পিএম says : 0
    You people just talk-- we don't want BNP/Awami League because they do not follow the Qur'an and Sunnah... we muslim want our Beloved country must be rule by the Law of Allah.. then all our human right will come back.. we will be able live in peace and there will be no more poverty and also we will have crime free societies.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রিজভী


আরও
আরও পড়ুন