Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ২৯ চৈত্র ১৪২৭, ২৮ শাবান ১৪৪২ হিজরী

চার পুলিশসহ আহত ৫

পল্লবী থানায় বিস্ফোরণ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা নেই

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০২০, ১২:০২ এএম

রাজধানীর পল্লবী থানায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে চার পুলিশ সদস্য এবং একজন সাধারণ নাগরিক আহত হয়েছেন। গত বুধবার ভোর রাতে থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতারকৃত আসামির সঙ্গে থাকা ভারী একটি বস্তু বিস্ফোরণে তারা আহত হন। তবে এ ঘটনায় কোনো জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা নেই বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। আহতরা হলেন- পল্লবী থানার ওসি (তদন্ত) ইমরান (৪৮), এসআই সজীব (৩০), পিএসআই অঙ্কুশ (২৮) ও পিএসআই রুমি (২৮)। এছাড়াও রিয়াজ (২৮) নামের একজন আহত হন এ ঘটনায়। যিনি পুলিশ সদস্য নন। তাদের মধ্যে পিএসআই রুমির দুই হাত, বাম পা এবং রিয়াজ নামের ওই ব্যক্তির দুই হাত ও পেট বিস্ফোরণে আঘাতপ্রাপ্ত হন। তারা ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এছাড়া পিএসআই অঙ্কুশ চক্ষু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ওসি ইমরান এবং এসআই সজীবকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। ঘটনার পর পরই সিআইডির বোম ডিসপোজাল টিমসহ বিভিন্ন সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে ছুটে যান। আলামত সংগ্রহের পাশাপাশি উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিবদর্শন করেন। এছাড়া ঘটনার পর বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের সদস্যরা তল্লাশি করে ওয়েট মেশিনের মতো দেখতে ওই ডিভাইসের ভেতর থেকে দুটি প্যাকেটে রক্ষিত বোমা সদৃশ বিস্ফোরক উদ্ধার করে। পরে সেগুলো নিষ্ক্রিয় করা হয়।

গতকাল বুধবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আমি মনে করি না, এই ঘটনার সঙ্গে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা আছে। যাদের আটক করা হয়েছে তারা ডাকাত দলের সদস্য। তাদের কাছে থাকা কিছু একটার বিস্ফোরণ হয়েছে। তারপরও তদন্ত হবে। এরপর বিস্তারিত বলা যাবে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম) কৃষ্ণপদ রায় বলেন, পল্লবী থানা পুলিশ ও মিরপুরের ডিবির নেতৃত্বে একটা টিম কাজ করছিল কয়েক দিন ধরে। এ অঞ্চলে মাঝে মাঝে ক্রাইম হয় নানা ধরনের। একটি গ্রুপ ক্রাইম করতে পারে বা ক্রাইম হতে পারে- এমন তথ্যের ভিত্তিতে গত রাত ২টার দিকে কালশী কবরস্থানের দিকে পুলিশের একটি টিম যায়। সেখানে একটি সংঘবদ্ধ গ্রুপ সমবেত হয়ে ক্রাইম করার পরিকল্পনা করছে-এমন খবরে পল্লবী থানা পুলিশ সেখানে অপারেশনে গিয়ে তিনজনকে আটক করা হয়।

তিনি আরো বলেন, সেখানে আরও কয়েকজন ছিল যারা পালিয়ে যায়। দুটি আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়। একটি ডিভাইস উদ্ধার করা হয়, যেটি ওয়েট মেশিনের মতো। ওজন মেশিনের মতো কোনো জিনিস কেন তাদের কাছে থাকবে, সেটা কী প্রশ্ন ওঠায় রাতেই বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটকে খবর দেয়া হয়। কিছুক্ষণের মধ্যে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট থানায় যায়। তারা ওই ডিভাইসটিকে স্টাডি করে। সেটা দেখার পর তারা আরও বিশদভাবে ডিভাইসগুলো খতিয়ে দেখতে পর্যবেক্ষণ মেশিনসহ আসার জন্য ইউনিটের অন্য সহকর্মীদের খবর দেয়। তারা যখন আরও পর্যবেক্ষণ মেশিন নিয়ে আসছিল তখন থানার ভেতর একটি বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণ ঘটার পরে আমাদের চার পুলিশ সদস্যসহ পাঁচ সদস্য আহত হন। তারা সবাই চিকিৎসাধীন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পল্লবী-থানা
আরও পড়ুন