Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ মাঘ ১৪২৭, ০৯ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

পুরোহিত ও ১৬ পুলিশকর্মী করোনা আক্রান্ত, রাম মন্দির উদ্বোধন নিয়ে বিতর্ক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০২০, ৫:০৪ পিএম

অযোধ্যায় বাবরি মসজিদের জায়গায় রাম মন্দিরে নির্মাণে একের পর এক বাধার সৃষ্টি হচ্ছে। প্রথমে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পরিকল্পনা করোনা মহামারির কারণে আটকে যায়। চার মাস পরে আবারো নতুন করে উদ্বোধনের তোড়জোড় শুরু হতেই এবার করোনা থাবা বসাল। আগামী সপ্তাহে ভূমি পূজা অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার কথা ছিল এক পুরোহিতের। তার করোনাভাইরাস রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। ভাইরাসের সংক্রমণ দেখা দিয়েছে সেখানে কর্তব্যরত ১৬ জন পুলিশকর্মীর মধ্যেও।

৫ আগস্ট অযোধ্যায় রাম মন্দিরের শিলান্যাস অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ ৫০ জনেরও বেশি ভিভিআইপির সেখানে উপস্থিত থাকার কথা। করোনাভাইরাস ঠেকাতে যাবতীয় কোভিড বিধি মেনে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। রাম মন্দিরের পুরোহিতরা আগেই জানিয়েছেন, ২০০ জনের বেশি অতিথি থাকবেন না অনুষ্ঠানে। দীপাবলির সাজে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে অযোধ্যাকে।

যদিও এই আশঙ্কার কথাই তুলে ধরে রাম মন্দিরে জাঁকজমকপূর্ণ শিলান্যাস অনুষ্ঠানের আয়োজন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল বিভিন্ন মহল। তৃণমূল তো বলেই দিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আগে করোনা সামলে পরে অযোধ্যায় ভূমিপুজো করতে পারতেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের মত, প্রধানমন্ত্রীর উচিত এখন কোভিড-মোকাবিলার লড়াইকেই ধ্যানজ্ঞান করা। দেশজুড়ে অতিমারীর প্রকোপ বৃদ্ধির আবহে প্রধানমন্ত্রীর হাতে রাম মন্দিরের আসন্ন শিলান্যাস নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে আগেই। বাংলার শাসকদল মনে করছে, কোভিড নিয়ন্ত্রণের ‘পবিত্র কর্তব্য’ পালনই এখন দেশের নেতার ‘পরম ধর্ম’ হওয়া উচিত।

রাজকীয় অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা হয়েছে অযোধ্যায়। সরাসরি তা সম্প্রচারও হবে দূরদর্শনে। এ নিয়ে রাজনীতির এক শিবিরে উচ্ছ্বাস, উন্মাদনার মধ্যেই নানা মহলে প্রশ্ন উঠেছে, আম ভারতবাসী যখন মহামারিতে বিপর্যস্ত, করোনা সংক্রমণের গতি যখন ঊর্ধ্বমুখী--ঠিক তখনই এমন অনুষ্ঠান কি বাঞ্ছনীয়?

মন্দির নির্মাণ কর্তৃপক্ষের দাবি, করোনাভাইরাসের পরিস্থিতিতে যথাসম্ভব স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘণ্টা দু’য়েকে অনুষ্ঠান হবে। নেতা-মন্ত্রী, সাধু-সন্ত ও কর্মকর্তা মিলিয়ে শ’দুয়েক মানুষের জমায়েত হবে। কিন্তু অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন, সাধারণ মানুষের উদ্যোগে একই সংখ্যক মানুষের কোনও জমায়েত কি এই মুহূর্তে অন্য কোথাও করতে দেয়া হবে? এ নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই রাম মন্দিরের পুরোহিত ও পুলিশকর্মীদের মধ্যে করোনার সংক্রমণে এই নিয়ে প্রশ্নটা আরও জোরদার হল বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সূত্র: টিওআই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

২৩ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ