Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৭, ১৩ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চট্টগ্রামের ৫টি দৈনিক পত্রিকার প্রকাশনা একযোগে বন্ধ

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০২০, ১১:১৮ পিএম

চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত পাঁচটি দৈনিক পত্রিকার প্রকাশনা ‘অনির্দিষ্টকালের জন্য’ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পত্রিকাগুলো হচ্ছে-দৈনিক আজাদী, দৈনিক পূর্বকোণ, বীর চট্টগ্রাম মঞ্চ, সুপ্রভাত বাংলাদেশ ও পূর্বদেশ। বৃহস্পতিবার এসব দৈনিক প্রকাশিত হয়নি।
ঈদ বোনাসের দাবিতে বুধবার আকস্মিকভাবে চট্টগ্রামের প্রাচীনতম পত্রিকা দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম এ মালেকের বাসভবন ঘেরাও কর্মসূচি পালন করে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন সিইউজে। বৃহস্পতিবার একই দাবিতে পূর্বকোণ ও পূর্বদেশ পত্রিকার সম্পাদকদের বাসা ঘেরাও করারও কর্মসূচি দেয়া হয়েছিলো।
জানা গেছে এসব কর্মসূচির কারণে সম্পাদকরা পত্রিকার প্রকাশনা বন্ধের সিদ্ধান্ত নেন। রাতে আজাদীসহ অন্যান্য পত্রিকায় কর্মরতরা জানতে পারেন, কর্তৃপক্ষ পত্রিকার প্রকাশনা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এ বিষয়ে দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম এ মালেক সাংবাদিকদের বলেন, পত্রিকা বন্ধ আছে। কারও বিরুদ্ধে আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমি কারও সঙ্গে ঝগড়া-বিবাদ চাই না।
পত্রিকাটির প্রধান প্রতিবেদক হাসান আকবর জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে দৈনিক আজাদীর প্রকাশনা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ আছে। দৈনিক বীর চট্টগ্রাম মঞ্চের সম্পাদক উমর ফারুক বলেন, চট্টগ্রাম নিউজ পেপার অ্যালায়েন্সের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পত্রিকা প্রকাশ হয়নি। দৈনিক পূর্বদেশের সম্পাদক মুজিবুর রহমান জানিয়েছেন দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এর বাসার সামনে কর্মসূচির পর সম্পাদকরা সম্মিলিতভাবে পত্রিকার প্রকাশনা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এটা সম্পাদকদের সম্মিলিত সিদ্ধান্ত। সিইউজের নেতাদের সঙ্গে আমার খুবই ভালো সম্পর্ক। আমি আশাবাদী, আলাপ-আলোচনার মধ্য দিয়ে এই সংকটের সমাধান হবে।
এ বিষয়ে সিইউজের সভাপতি মোহাম্মদ আলী বলেন, বোনাস থেকে সাংবাদিকদের বঞ্চিত করতে ঈদুল আজহার নির্ধারিত ছুটির আগে পত্রিকার প্রকাশনা বন্ধ রাখা হয়েছে। এটা অপকৌশল, ঈদের পর আমরা আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করবো।
্এদিকে সিইউজের এক জরুরি সভায় পত্রিকার প্রকাশনা বন্ধ করে পাঠকদেরও সংবাদপ্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে বলেও অভিমত ব্যক্ত করা হয়। সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম, সিনিয়র সহ-সভাপতি রতন কান্তি দেবাশীষ, সহ-সভাপতি অনিন্দ্য টিটোসহ সাংবাদিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন।



 

Show all comments
  • কে এম শাকীর ৩১ জুলাই, ২০২০, ১২:৩২ এএম says : 0
    ঈদের আগে বেতন বোনাস না দিয়ে এভাবে বন্ধ করা খুবই অমানবিক হয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ তোফায়েল হোসেন ৩১ জুলাই, ২০২০, ১২:৩৩ এএম says : 0
    করোনায় মিডিয়ার অবস্থা খুবই খারাপ যাচ্ছে বোঝা যাচ্ছে। আল্লাহ তুমিই হেফাজতকারী।
    Total Reply(0) Reply
  • তাসফিয়া আসিফা ৩১ জুলাই, ২০২০, ১২:৩৪ এএম says : 0
    খুবই দু:খজনক ঘটনা। পাঁচটা পত্রিকায় কতগুলো মানুষ কাজ করতো, সবাই ঈদের আগে বেকার হয়ে গেল।
    Total Reply(0) Reply
  • গাজী ওসমান ৩১ জুলাই, ২০২০, ১২:৩৪ এএম says : 0
    গণমাধ্যমকে টিকিয়ে রাখা এখন বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • তোফাজ্জল হোসেন ৩১ জুলাই, ২০২০, ১২:৩৫ এএম says : 0
    রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ গণমাধ্যম টিকিয়ে রাখতে সরকারকে বিশেষ প্রণোদনা দেয়া উচিত।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Syed Alam ৩১ জুলাই, ২০২০, ১২:৩৫ এএম says : 0
    Very Sad News!!!
    Total Reply(0) Reply
  • Ruhul Amin ১ আগস্ট, ২০২০, ১১:৪৮ এএম says : 0
    No denial that everyone is undergoing unprecedented crisis all over the world. The owners, the management, the employees and even the general public are suffering. All concerned parties in this case, the newspaper industry including owners, editors and the journalists were better discuss the total scenario; eid bonus should not have been an issue for closure of the newspapers I Chittagong. Many organisations I including banks have reduced salaries, made part payments. Journalists are noticed by every citizen, their behaviour has to be more responsible. Hopefully, what has happened, now can not be reversed, but should be solved amicably. Everyone has to sacrifice in the greater interest.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রকাশনা বন্ধ
আরও পড়ুন