Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ০৯ সফর ১৪৪২ হিজরী

দক্ষিণাঞ্চলে করেনা সংক্রমণে একমাসে ৫১ জনের মৃত্যু আক্রান্ত প্রায় ২ হাজার ৭শ

২৪ ঘন্টায় আরো একজনের মৃত্যু সহ আক্রান্ত ৮২

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩১ জুলাই, ২০২০, ৩:১৪ পিএম

দক্ষিণাঞ্চলে করেনা সংক্রমণে জুলাই মাসেই ৫১ জনের মৃত্যু ও প্রায় ২ হাজার ৭শ আক্রান্ত হল সরকারী হিসেবে। ফলে এ পর্যন্ত সর্বমোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ১১৬ জনে। আক্রান্তের সংখ্যাও ৫ হাজার ৭৪৫। শুক্রবার দুপুরের পূর্ববর্তী ২৪ ঘন্টায় একজনের মৃত্যু সহ নতুন আক্রান্ত হয়েছে ৮২ জন। এ সময়ে শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বরিশালের উজিরপুরের ৫৫ বছর বয়স্ক এক রোগী মারা যান। বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ-এর পিসিআর ল্যাবে ২৮৮ জনের নমুনা পরিক্ষায় ৬২ জনের ও ভোলার ল্যাবে আরো ৪০ জনের পরিক্ষায় ৭ জনের দেহে করোনা পজেটিভ সনাক্ত হয়েছে। অপরদিকে স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমিত হিসেবনুযায়ী শনিবার দুপুরের পূর্ববর্তি ২৪ ঘন্টায় দক্ষিণাঞ্চলে আরো ১০৩ জন সহ মোট ৩ হাজার ৬৩৭ জনের সুস্থ হয়ে ওঠার কথা বলা হয়েছে। 

শণিবারের হিসেবনুযায়ী একমাত্র ভোলা ছাড়া অন্যসব জেলাগুলোতেই আগের দিনের তুলনায় করোনা সংক্রমন হ্রাস পেয়েছে। এসময়ে ভোলাতে সনাক্তের সংখ্যা আগের দিনের ৭জন থেকে ১৭তে বৃদ্ধি পেয়েছে। জেলাটিতে এ পর্যন্ত ৫২৮ আক্রান্তের মধ্যে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর মোট সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাটা ৩৭৩।
অপরদিকে দক্ষিণাঞ্চলে করোনার অন্যতম হটস্পট বরিশালে আক্রান্তের সংখ্যাটা আগের দিনের ৩১ থেকে ১৯-এ হ্রাস পেলেও এসময়ে জেলার উজিরপুরের একজন শের এ বাংলা হাসপাতালে মারা গেছেন। এনিয়ে জেলায় মৃতের সংখ্যা দাড়াল ৪৩। আর সরকারী হিসেবে করেনা সংক্রমনের সংখ্যা ২ হাজার ৪৪৫। তবে স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমিত হিসেবনুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় ৩৭ জন সহ সর্বমোট ১ হাজার ৫৬০ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

পটুয়াখালীতেও আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ১৪ থেকে গত ২৪ ঘন্টায় আটজনে হ্রাস পেয়েছে। তবে দক্ষিণাঞ্চলের করোনার আরেক হটস্পট এ জেলায় এখনো মৃত্যু হার ৩%-এর মত। এপর্যন্ত জেলাটিতে ১ হাজার ২৫ জন আক্রান্তের মধ্যে মারা গেছেন ৩০জন। আর গত ২৪ ঘন্টায় ৩ জন সহ সর্বমোট ৬২১ জনের সুস্থ্য হয়ে ওঠার কথা বলা হয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমিত হিসেবে।

পিরোজপুরেও আক্রান্তের সংখ্যাটা আগের দিনের ২৫ থকে ১৫তে হ্রাস পাবার কথা বলা হয়েছে। এজেলায় সরকারীভাবে ৭২৩ জন আক্রান্তের মধ্যে ১২ জনের মৃত্যুর কথা বলা হয়েছে। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪শ জন। যার মধ্যে গত ২৪ ঘন্টাতেই রয়েছেন ১২ জন।
ছোট জেলা বরগুনাতে করোনা সংক্রমনের সংখ্যা এখনো স্বস্তিকর নয়। নতুন আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ১৪ থেকে ১২তে হ্রাস পেলেও এ পর্যন্ত জেলায় ৬৩৯জন আক্রান্তের মধ্যে মারা গেছেন ১৩ জন। তবে স্বাস্থ্য বিভাগের মতে গত ২৪ ঘন্টায় রেকর্ড সংখ্যক ৪৪ জন সহ মোট সুস্থ হয়েছেন ৪০৬ জন।
দক্ষিণাঞ্চলের সবচেয়ে ছোট জেলা ঝালকাঠীতেও শণিবার দুপরের পূর্ববর্তি ২৪ ঘন্টায় আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ১৫ থেকে ১১তে হ্রাস পেলেও এপর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৪৮৫ জনের মধ্যে মরা গেছেন ১২ জন। আর গত ২৪ ঘন্টায় মাত্র ১জন সহ জেলায় মোট সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা ২৭৭।

এদিকে বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে শণিবার সকালের পূর্ববর্তি ২৪ ঘন্টায় নতুন ৩ জন রোগী ভর্তি করা হলেও ছাড়পত্র পেয়েছেন ১৪ জন। ওয়ার্ডটিতে বর্তমানে চিকিৎসাধীন ২৮ জন। অপরদিকে করোনা ওয়ার্ডে নতুন কোন রোগী ভর্তি না হলেও ছাড়পত্র পেয়ে ঘরে ফিরেছেন ৪ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন ৩৪ জন। এ দুটি ওয়ার্ডে ভর্তিকৃতদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় ৭ জনের নমুনা পরিক্ষায় দুজনের দেহে করোনা পজেটিভ সনাক্ত হয়েছে। তবে হাসপাতালটির এ দুটি ওয়ার্ড করোনা উপসর্গ নিয়ে এ পর্যন্ত ভর্তিকৃত ১,১৯২ জনের মধ্যে ৯৩৯ জনের নমুনা পরিক্ষায় ৩৫৪ জনের দেহে করোনা পজেটিভ সনাক্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। এ দুটি ওয়ার্ডেই মৃত্যুবরন করেছেন ১৬৭ জন। যার মধ্যে করোনা ওয়ার্ডেই ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আইসোলেশনে ১০৩ জন মারা গেলেও ৯জনের নমুনা পরিক্ষার ফল পাওয়া যায়নি।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনা ভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন