Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ট্রাম্পের দাবি নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ, চলতি বছরেই ভ্যাকসিন পাওয়ার আশাবাদ ফাউসির

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ আগস্ট, ২০২০, ৯:১১ এএম

যুক্তরাষ্ট্র সম্ভবত চলতি বছরের শেষের দিকে বা ২০২১ সালের প্রথম দিকে একটি নিরাপদ এবং কার্যকর করোনা ভ্যাকসিন পাবে। শুক্রবার মার্কিন কংগ্রেসের শুনানিতে অংশ নিয়ে এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডক্টর অ্যান্টনি এস ফাউসি। তিনি করোনা চিকিৎসায় হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন কার্যকর বলে মার্কিন প্রেসিডেন্টের করা দাবি নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেন।

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় ট্রাম্প প্রশাসনের নেয়া পদক্ষেপের ঘটনা তদন্তে স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির নেতৃত্বেগঠিত মার্কিন কংগ্রেসের এক সাব-কমিটি এই শুনানির আয়োজন করে। সেখানে দেয়া বক্তব্যে ফাউসি জানান, ‘দ্রুতগতিতে ভ্যাকসিন তৈরির কাজ এগিয়ে চললেও সুরক্ষা মান এবং বৈজ্ঞানিক শর্তাবলির সঙ্গে কোনও ধরনের আপোস করা হবে না বলে ।’ তিনি বলেন, ‘আমি জানি, অনেক মানুষ মনে করেন- এটা খুব দ্রুত গতিতে তৈরি হচ্ছে এবং এর সুরক্ষা এবং বৈজ্ঞানিক বিষয়াবলিতে আপোস করা হবে। আমি তাদের আশ্বস্ত করতে পারি যে, এ ধরনের ঘটনা ঘটছে না। ভিন্ন ভিন্ন প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে আমাদের কাজ দ্রুতগতিতে চলছে। তিনি আরও বলেন, ‘মডার্নার তৈরি করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ধাপের পরীক্ষায় বেশ সন্তোষজনক ফল পাওয়া গেছে। সম্ভাব্য অন্যান্য ভ্যাকসিনের সঙ্গেও সরকারের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।’

কবে নাগাদ ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে সে বিষয়ে ফাউসি বলেন, ‘আমি এটা প্রায়ই বলি এবং আমি এখনই এর পুনরাবৃত্তি করবো : আপনি নিরাপদ এবং কার্যকর ভ্যাকসিন পেতে চলেছেন এমন কোনও নিশ্চয়তা নেই। কিন্তু এখন পর্যন্ত প্রাণী ও মানবদেহে প্রাথমিক পরীক্ষায় আমরা যে তথ্য-উপাত্ত পেয়েছি, তাতে আমরা সতর্কতার সঙ্গে আশাবাদী যে, আমরা চলতি বছরের শেষের দিকে অথবা ২০২১ সালের শুরুর দিকে একটি ভ্যাকসিন পেতে পারি। সুতরাং আমি মনে করি না যে- এটি স্বপ্নের মতো।’

ফাউসি ভ্যাকসিন তৈরিতে রাশিয়া এবং চীনের প্রচেষ্টা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘আমি আশা করি যে চীন এবং রাশিয়া কাউকে ভ্যাকসিন দেয়ার আগে প্রকৃতপক্ষে সেটি পরীক্ষা করে দেখেছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি না যে, আমাদের থেকে ভ্যাকসিন তৈরিতে অন্য কোন দেশ এত বেশি এগিয়ে থাকবে, যাতে টিকা দেয়ার জন্য আমাদেরকে অন্যান্য দেশের উপর নির্ভর করতে হবে।’

ফাউসির এই মন্তব্য এমন সময়ে এলো যখন ফরাসী ড্রাগ প্রস্তুতকারক সংস্থা সানোফি ঘোষণা করেছিল যে, তারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সরকারকে তাদের পরীক্ষামূলক করোনাভাইরাস ভ্যাকসিনের ১০০ মিলিয়ন ডোজ সরবরাহের জন্য ২১০ কোটি ডলারের চুক্তি করেছে, যা এখনও অবধি ঘোষিত এ জাতীয় বৃহত্তম চুক্তি। ডক্টর ফাউসি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার দল কনজারভেটিভদের নির্দেশিত ও ডেট্রয়েটের হেনরি ফোর্ড হাসপাতালের পরিচালিত একটি গবেষণার বিষয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেন। ওই গবেষণায় বলা হয়েছে, করোনা প্রতিরোধে ম্যালেরিয়া চিকিৎসায় ব্যবহৃত ড্রাগ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন সুস্পষ্ট উপকারীতা দেখিয়েছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পও করোনা চিকিৎসায় এই ড্রাগ কার্যকর বলে দাবি করেছিলেন। সূত্র: নিউ ইয়র্ক টাইমস।



 

Show all comments
  • আরিফ ১ আগস্ট, ২০২০, ৯:১৫ এএম says : 0
    চলতি বছরের ভ্যাকসিন পাওয়া গেল খুব ভালো হবে
    Total Reply(0) Reply
  • রোমান ১ আগস্ট, ২০২০, ৯:১৫ এএম says : 0
    সারাবিশ্বের মানুষদের জন্য এখন ভ্যাকসিন টা খুব জরুরী
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ