Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ০৯ সফর ১৪৪২ হিজরী

কুড়িগ্রামে বানভাসিদের দুর্ভোগ বেড়েই চলেছে

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০২০, ১:৪১ পিএম

বৃষ্টি ও উজানের ঢলে কুড়িগ্রামে ব্রহ্মপুত্র ও ধরলার পানি কিছুটা কমলেও এখনও ব্রহ্মপুত্র ও ধরলার পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে।এদিকে তিস্তার পানি বাড়লেও বিপদসীমার নীচ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। আাজ সোমবার সকালে ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারী পয়েন্টে ২১ সেন্টিমিটার ও ধরলার পানি কুড়িগ্রাম ব্রীজ পয়েন্টে ৪০ সেন্টিমিটার বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে। এছাড়া ধরলা ও ব্রহ্মপুত্রের পানি এখনো বিপদসীমার উপরে থাকায় একমাসের অধিক সময় ধরে প্রায় সাড়ে ৩ লাখ মানুষ এখনো পানিবন্দী রয়েছে। চিলমারীসহ বিভিন্ন স্থানে রাস্তা, রেললাইন ও বাঁধে আশ্রিত মানুষের দুর্ভোগ বেড়েই চলেছে। দফায় দফায় বন্যার কারণে গবাদীর পশুর খাদ্য সংকট ও রোগ ব্যাধি নিয়ে বিপাকে পড়েছে বানভাসীরা। এদিকে ব্রহ্মপুত্রের ভাঙনে কুড়িগ্রাম সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়নের চর যাত্রাপুর, পোরার চর ও গারুহারা এলাকার ১৫০ পরিবার গৃহহীন হয়েছে। এদিকে রাজারহাট উপজেলার বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের গাবুর হেলান এলাকার স্পারটি ভাঙনের মুখে পড়েছে। কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ড ১৫দিন ধরে স্পারটি রক্ষায় ৪হাজার৬০০ বালুভর্তি জিও ব্যাগ ফেলে ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা করছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্যা পরিস্থিতি


আরও
আরও পড়ুন