Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ০৯ সফর ১৪৪২ হিজরী

ঠাকুরগাঁও সীমান্তের নদীতে ভারত থেকে ভেসে এলো বাংলাদেশি যুবকের লাশ

ঠাকুরগাঁও জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০২০, ২:০০ পিএম

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের রত্নাই সীমান্তে নাগর নদীতে বাংলাদেশি যুবকের লাশ ভারত থেকে ভেসে এসেছে।
সোমবা র সকালে নদীর ধারে ভেসে আসা ওই বাংলাদেশীর লাশ দেখে রত্নাই ক্যাম্পের বিজিবি ও পুলিশকে খবর দিলে লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত ওই ব্যক্তির নাম মামুন (৩২)। তিনি বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের ঠকবস্তী গ্রামের সাদেকুল ইসলামের ছেলে (ইউপি সদস্য শামসুল আলমের নাতী)। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আমজানখোর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আকালু।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবার (১ আগষ্ট) রাতে ৪ জনের একটি দল গরু ও ফেনসিডিল আনতে অবৈধ পথে সীমান্ত দিয়ে ভারতে যায়। রবিবার (২ আগস্ট) গভীর রাতে ফেরার সময় বাংলাদেশের রত্নাই এবং ভারতের সোনামতি সীমান্তে ৩৮২(৪) এস পিলারের দক্ষিণ শেষ প্রান্তে ভারতীয় আয়রন ব্রীজের নীচে গেলে বিএসএফ সদস্যরা তাদের ওপর পাথর ছুড়ে মারে এ সময় পাথরের আঘাতে আল-মামুন নিহত হন এবং ঠকবস্তি পশ্চিম হরিনমারী এলাকার মোহাম্মদ আলী ওরফে বম (২৮)সহ দুই জন আহত হন।

পরে আহতরা পালিয়ে আসলেও নিহত আল-মামুনের লাশ সোমবার(৩ আগষ্ট) সাড়ে ৮টার দিকে লাশ সীমান্তের মরাধর গ্রামের পশ্চিম পার্শ্বের ৩৮২(৩)এস পিলার এলাকায় নাগর নদীতে ওই ব্যক্তির লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা বিজিবি ও পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ৫০ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল শহিদুল ইসলাম জানান, রত্নাই সীমান্তের মরাধর গ্রামের পশ্চিম পার্শ্বের ৩৮২(৩)এস পিলার এলাকায় নাগর নদীতে ওই ব্যক্তির লাশ ভাসতে দেখার বিষয়টি শুনেছি। বিজিবি জোয়ানরা সেখানে আছে। বিস্তারিত জানবার জন্য বিএসএফ’র সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন