Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ১৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ইন্ডাস্ট্রিতে টিকতে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়: কারিনা

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ আগস্ট, ২০২০, ৭:০৬ পিএম

বলিউডের প্রথম সারির তারকাদের মধ্যে একজন কারিনা কাপুর খান। কাপুর পরিবারের সন্তান হলেও অভিনয় গুনে বলিউডে নিজের অবস্থান পাকাপোক্ত করেছেন তিনি। ক্যারিয়ারে একের পর এক হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন দর্শকদের। তবে গেল কয়েকদিন ধরে স্বজনপ্রীতি ইস্যুতে কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছে তাকে। যদিও এতদিন বিষয়টি নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করেননি। এবার এক সাক্ষাৎকারে নেপোটিজম নিয়ে খোলামেলা আলাপ করেছেন এই চিত্রতারকা।

সম্প্রতি সাংবাদিক বরখা দত্তের উপস্থাপনায় অনলাইনে একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন কারিনা কাপুর খান। সেখানে ইন্ডাস্ট্রির ভেতরের ও বাহিরের তারকাদের নিয়ে অকপটে কথা বলেছেন তিনি। কারিনা বলেন, 'কিছু মানুষ বিষয়গুলো জেনে শুনেও শুধুমাত্র আক্রমণের জন্য ইস্যুটিকে কাজে লাগাচ্ছেন।'

অভিনেত্রীর কথায়, 'শুধুমাত্র স্বজনপোষণের দোহাই দিয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে ২১ বছর টিকে থাকা যায় না। এটা কখনো সম্ভবও নয়। আমি তারকা সন্তানদের লম্বা তালিকা দিতে পারব, যারা ইন্ডাস্ট্রিতে টিকে থাকতে পারেনি। ইন্ডাস্ট্রিতে টিকতে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়।'

ওই সাক্ষাৎকারে নিজের স্ট্রাগলের কথা উল্লেখ করে কারিনা বলেন, 'হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগলেও আমাকে স্ট্রাগল করতে হয়েছে। তবে যারা পকেটে ১০ টাকা নিয়ে ট্রেনে চড়ে মুম্বাইয়ে এসেছে তাদের মতো আকর্ষণীয় কিছু না হলেও আমাকে পরিশ্রম করতে হয়েছে। হয়তো উল্লেখযোগ্য কিছু নেই, তবে বিষয়টি নিয়ে আমি কাউকে কৈফিয়ত দিতেও ইচ্ছুক নই।'

বহিরাগত এবং বলিউডে কেউ না থাকা সত্ত্বেও ফিল্মি ক্যারিয়ারে সফল হয়েছেন শাহরুখ খান এবং অক্ষয় কুমার। দর্শকরা তাদের গ্রহণ করেছেন বলেই তারা তারকা হয়েছেন। আর তারকা খ্যাতি পুরোপুরি নির্ভর করে দর্শক প্রতিক্রিয়ার ওপর। যোগ করে বলেন কারিনা।

বরখা দত্তকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বেবো সবশেষে বলেন, 'সত্যি বলতে দর্শকরাই আমাদের তারকা বানায়। কেননা তারা সিনেমা দেখতে যান এবং আমাদের কাজ উপভোগ করেন বলেই বাহ বাহ জানায়। এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা উঠলেই আমার কাছে অদ্ভুদ লাগে। শুধু বহিরাগতদেরই নয় আমাদেরও পরিশ্রম করতে হয়।'



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন