Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ মাঘ ১৪২৭, ১০ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন, বিচারের আশ্বাস

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৪ আগস্ট, ২০২০, ৭:১৯ পিএম | আপডেট : ৭:১৯ পিএম, ৪ আগস্ট, ২০২০

পুলিশের গুলিতে নিহত সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের মা নাসিমা আক্তারকে ফোন করে সমবেদনা ও সান্তনা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী সিনহা রাশেদের মাকে ফোন করেন। প্রধানমন্ত্রী মেজর (অব.) রাশেদের মাকে এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের আশ্বাস দিয়েছেন বলে নিহত রাশেদের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন।
নাসিমা আক্তার সাংবাদিকদের বলেন, সকালে প্রধানমন্ত্রী ফোন করেছিলেন। ছেলের এমন মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী সান্তনা ও সমবেদনা জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী আমাকে বলেছেন, আমিও একই পথের পথিক। আপনাকে কিছু বলার মতো ভাষা আমার নেই। আমিও পুরো পরিবার হারিয়েছি।
সিনহার মা নাসিমা আক্তার বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি, ছেলেকে ফিরে পাব না। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার চাই। জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে বিচার হবে।
গত ৩১ জুলাই রাত ৯টায় টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর পুলিশ চেকপোস্টে গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। এই ঘটনায় একটি গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনে সিনহার সঙ্গে থাকা সিফাত নামে এক যুবকের ভাষ্য দিয়ে বলা হয়েছে, কোনোরূপ জিজ্ঞাসাবাদ ছাড়াই মেজর (অব.) সিনহার বুকে একে একে তিনটি গুলি ছোড়েন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলী। অন্যদিকে টেকনাফ মডেল থানায় পুলিশের করা মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, সিনহা হঠাৎ করে তার কোমরের ডান পাশ থেকে পিস্তল বের করে গুলি করার জন্য উদ্যত হলে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ লিয়াকত আলী নিজের এবং সঙ্গে থাকা অফিসার ফোর্সদের জানমাল রক্ষার জন্য চারটি গুলি করেন।



 

Show all comments
  • অদিতি ৪ আগস্ট, ২০২০, ৭:৩৮ পিএম says : 4
    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ
    Total Reply(0) Reply
  • মিল্লাত ৪ আগস্ট, ২০২০, ৭:৩৮ পিএম says : 1
    আশাকরি এবার এই হত্যাকাণ্ডের মূল রহস্য উদ্ঘাটিত হবে
    Total Reply(0) Reply
  • রেজাউল করিম ৪ আগস্ট, ২০২০, ৭:৩৯ পিএম says : 0
    এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার চাই।
    Total Reply(0) Reply
  • আক্তার হোসেন ৪ আগস্ট, ২০২০, ৭:৫১ পিএম says : 3
    প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতার কারণে আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে অপরাধীদেরকে প্রমাণসহ দোষী সাব্যস্ত করে শাস্তি দেওয়া যাবে
    Total Reply(0) Reply
  • সেখ সাগর ৪ আগস্ট, ২০২০, ৭:৪৬ পিএম says : 0
    অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া দরকার। না হলে এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে বারবার
    Total Reply(0) Reply
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ৪ আগস্ট, ২০২০, ৮:৪২ পিএম says : 1
    পূর্ণ সামরিক মর্যাদা দিয়ে মেজর সিনহাকে দাফনের মাধ্যমে বাংলাদেশের মানুষের গভীর শ্রদ্ধা সহানুভূতির প্রতি সম্মান প্রকাশ পেল। বিশ্ব মানবতার মা মাননীয় প্রধান মন্ত্রী গভীর শোকাহত পরিবারের প্রতি সান্ত্বনা দিতে ফোনের মাধ্যমে শহীদ মেজর সিনহার মাকে সান্ত্বনা সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস। আমরা আশানিত্ব হলাম বিচার পাওয়ার। বীর মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশে সান্ত্বনা সান্নিধ্য দিতে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী ডাকুন প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়ে। আল্লাহর দরবারে দেশ ও জাতির শান্তি শৃংখলা কামনা করছি। আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • Rabbí ৪ আগস্ট, ২০২০, ৮:৫০ পিএম says : 0
    আচ্ছা বুজলাম নিজের জিবন বাচানর জন্ন্য গুলি করেছে। গুলিতি তো পায়ে বা হাতেই করলে হয় তাই না। আমার মনে হয় এই খানে অনেক বড়ো কিছু লুলিয়ে আছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ৪ আগস্ট, ২০২০, ৯:৩৪ পিএম says : 4
    এই সংবাদটা পড়ার পর মনটা আনন্দে ভরে উঠেছে কারন এখন সেনাকর্মকর্তাকে হত্যার বিচার সঠিক ভাবেই হবে ইনশ’আল্লাহ্‌। আমাদের দেশের সকল মন্ত্রণালয় সড়াসড়ি প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে দায়বদ্ধ কাজেই আমি দেখেছি প্রধানমন্ত্রীর মুখথেকে যখনই কোন সিদ্ধান্ত বের হয় সেটা বাস্তবায়িত হয়। ৩১ জুলাই সিনহাকে হত্যা করেছে পুলিশ আর ৪দিনের মাথায় প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং সিনহার মার সাথে কথা বলে তাঁকে সুষ্ঠ তদন্ত ও বিচারের আশ্বাস দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী খুবই বিচক্ষন প্রশাসক বিধায় যখনই তিনি কোন পরিস্থিতি আলোচনায় এসে যায় সেটা নিয়ে তিনি গবেষণা করে সেইভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে এগিয়ে আসেন এবং পরিস্থিতিকে স্তিমিত করেন। আমি দেখেছি প্রধানমন্ত্রীর এই গুণটার জন্যে তিনি অনেক বিপদ থেকে রেহাই পেয়ে যান। আমি আল্লাহ্‌র দরবারে প্রার্থনা করছি আল্লাহ্‌ যেন আমাদের (মুক্তিযোদ্ধাদের) কষ্টার্জিত দেশ বাংলাদেশকে সঠিক পথে চলার ব্যাবস্থা (সরকার কর্তৃক) করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • Amzad Hossain ৪ আগস্ট, ২০২০, ১০:৩৪ পিএম says : 2
    ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার চাই।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন