Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০২ সফর ১৪৪২ হিজরী

থুতু ফেললেই লাল কার্ড!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০২০, ১২:০১ এএম

যুগ যুগ ধরে ফুটবলে মাঠে কর্মকর্তাদের কোনো সিদ্ধান্ত বা কোনো প্রতিপক্ষকে পছন্দ না হলে থুতু মারার ‘সংস্কৃতি’ নতুন নয়। এর আগে ইচ্ছে করে থুতু ফেললে রেফারি কিছু বলতেন না। কিন্তু এখন আর থুতু মেরে পার পাওয়া যাবে না। আন্তর্জাতিক ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বোর্ড (আইএফএবি) জানিয়েছে ইচ্ছে করে থুতু মারা গালিগালাজ করা বা অশোভন অঙ্গভঙ্গি করার শামিল। কাজেই এখন থেকে ইচ্ছে করে থুতু মারলে দেখতে হবে লাল কার্ড।
লাল কার্ড দেওয়ার আগে রেফারিকে বিবেচনা করতে হবে কাজটা ঠিক কী উদ্দেশ্যে করা হয়েছিল। যদি বোঝা যায় যে ইচ্ছাকৃতভাবেই করা হয়েছে, তাহলে লাল কার্ড দেখানো হবে। আইএফএবি জানিয়েছে, ‘যদি স্পষ্টত ভুলক্রমে কেউ থুতু মারে, তাহলে সে ব্যাপারে রেফারি বিবেচনা করবেন। কোনো শাস্তি দেওয়া হবে না। কিংবা দূরবর্তী কোনো খেলোয়াড়ের দিকে উদ্দেশ্য করেও যদি থুতু মারা হয়, তাও রেফারি কিছু বলবেন না। কিন্তু, দুই খেলোয়াড়ের দূরত্ব যদি অনেক কম থাকে, তাহলে রেফারি শাস্তি দিতে পারবেন।’
এমনিতেই করোনাভাইরাসের কারণে ক্রীড়াঙ্গনে লালা বা থুতুর ব্যাপারে কড়াকড়ি করা হচ্ছে। থুতু থেকে যেহেতু ভাইরাস ছড়ায়, সেহেতু খেলার মধ্যে যাতে এমন কিছু না হয় যাতে ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটে, সেটা নিশ্চিত করার জন্য ক্রীড়া নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলো বদ্ধপরিকর। ক্রিকেটেই যেমন, বোলাররা আর বলে লালা লাগাতে পারবেন না। নতুন এই নিয়ম করার মাধ্যমে ফুটবলও মাঠে অযাচিত থুতু ফেলার বিষয়টা নিয়ন্ত্রণ করল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন